শাহের গড়েই লড়তে পারেন আহমেদ পটেল
গুজরাতের রাজ্য নেতৃত্বের থেকে প্রস্তাব এসেছে, যাতে আহমেদ পটেলকে গুজরাতের ভারুচ কেন্দ্র থেকে প্রার্থী করা হয়।
Ahmed Patel

—ফাইল চিত্র।

রাহুল গাঁধীর সবুজ সঙ্কেত পেলে গুজরাত থেকে লোকসভা ভোটে লড়তে পারেন সনিয়া গাঁধীর এক সময়ের রাজনৈতিক উপদেষ্টা ও বর্তমানে কংগ্রেসের কোষাধ্যক্ষ আহমেদ পটেল।

কংগ্রেস সূত্রের মতে, গুজরাতের রাজ্য নেতৃত্বের থেকে প্রস্তাব এসেছে, যাতে আহমেদ পটেলকে গুজরাতের ভারুচ কেন্দ্র থেকে প্রার্থী করা হয়। এই কেন্দ্র থেকেই ১৯৭৭, ১৯৮০ ও ১৯৮৪ সালে লোকসভা ভোট জিতেছিলেন তিনি। কিন্তু ১৯৮৯ সালের ভোটে হেরে যান। তার পর থেকে রাজ্যসভারই সাংসদ হয়েছেন।

বছর কয়েক আগে আহমেদ পটেল যখন রাজ্যসভার প্রার্থী হয়েছিলেন, তাঁকে হারানোর জন্য উঠেপড়ে লেগেছিলেন বিজেপি সভাপতি অমিত শাহ। তবু হারাতে পারেননি। অমিত শাহ এখন লালকৃষ্ণ আডবাণীকে সরিয়ে গাঁধীনগরের প্রার্থী হয়েছেন। এই পরিস্থিতিতে ফের বিজেপিকে টক্কর দেওয়ার জন্য প্রস্তুত আহমেদ পটেল। কংগ্রেস সূত্রের মতে, রাহুল গাঁধীর সবুজ সঙ্কেত পেলেই আহমেদ প্রার্থী হবেন। দু’এক দিনের মধ্যেই এই ঘোষণা হতে পারে। গুজরাতের এই কেন্দ্র থেকেই আদিবাসী নেতা ছোটু ভাসাভার সঙ্গে জোটের কথা হচ্ছিল। কিন্তু আহমেদ লড়ার অর্থ, সেই জোট হচ্ছে না। ভাসাভা জানিয়েছেন, তিনি ওই কেন্দ্র থেকেই লড়বেন। বিজেপি তাঁকে সমর্থন করুক আর না-ই করুক। ভাসাভা এ-ও জানিয়েছেন, ৩ এপ্রিল মনোনয়ন জমা দেবেন তিনি।

দিল্লি দখলের লড়াই, লোকসভা নির্বাচন ২০১৯

২০১৯ লোকসভা নির্বাচনের ফল

আপনার মত