প্রার্থীদের নাম, প্রতীকে ধর্মের ব্যবহার হয়েছে কি? কমিশনকে জানাতে বলল আদালত
দিল্লি হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতি রাজেন্দ্র মেনন ও বিচারপতি এ জে ভাম্বানিকে গড়া একটি ডিভিশন বেঞ্চ একটি জনস্বার্থ মামলায় শুক্রবার ওই নোটিস দিয়েছে নির্বাচন কমিশন ও কেন্দ্রীয় সরকারকে।
ec

ফাইল ছবি।

রাজনৈতিক দলগুলির প্রার্থীদের নামে ধর্মীয় দ্যোতনার ব্যবহার হচ্ছে কি না বা তাঁদের প্রতীকে জাতীয় পতাকার মতো কিছু ব্যবহার করা হচ্ছে কি না, সে ব্যাপারে সব কিছু জানানোর জন্য নির্বাচন কমিশন ও কেন্দ্রকে নোটিস পাঠাল দিল্লি হাইকোর্ট। দিল্লি হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতি রাজেন্দ্র মেনন ও বিচারপতি এ জে ভাম্বানিকে গড়া একটি ডিভিশন বেঞ্চ একটি জনস্বার্থ মামলায় শুক্রবার ওই নোটিস দিয়েছে নির্বাচন কমিশন ও কেন্দ্রীয় সরকারকে। মামলার পরের শুনানির দিন ধার্য হয়েছে ১৭ জুলাই।

বিষয়টি খতিয়ে দেখার জন্য বিজেপি নেতা অশ্বিনী কুমার উপাধ্যায় একটি জনস্বার্থ মামলা করেছেন দিল্লি হাইকোর্টে।

পিটিশনে উপাধ্যায়ের বক্তব্য, এ ব্যাপারে ১৯৫১-র জনপ্রতিনিধিত্ব আইনে কোনও ফাঁকফোকড় থেকে গিয়েছে কি না, তা খতিয়ে দেখা হোক। দেখা হোক, রাজনৈতিক দলগুলির প্রার্থীরা ভোটে তার কোনও সুযোগ নিচ্ছেন কি না। এই সব খতিয়ে দেখা হলে ভোটপর্ব অনেক বেশি অবাধ ও সুষ্ঠু হবে বলেও আদালতে জানিয়েছেন বিজেপি নেতা উপাধ্যায়।

আরও পড়ুন- বিজেপির ভোট-বিজয়ের পর দ্বিতীয় দিনেও ৩৯ হাজার ছাড়িয়ে গেল সেনসেক্স​

আরও পড়ুন- উত্তরপ্রদেশ, কর্নাটক, ওড়িশা...পদত্যাগের হিড়িকে বেসামাল কংগ্রেস​

২০১৯ লোকসভা নির্বাচনের ফল

আপনার মত