অবসর নিচ্ছি না, রাহুল প্রধানমন্ত্রী হলে পাশে থাকব, বললেন দেবেগৌড়া
বৃহস্পতিবার সাংবাদিকদের এ কথা বলেছেন দেবেগৌড়া। আগে তিনি জানিয়েছিলেন, এ বার লোকসভা ভোটে আর দাঁড়াবেন না। পরে অবশ্য মত বদলে ফেলেন ৮৫ বছর বয়সী নেতা।
deve gawda

- ফাইল ছবি।

না, আর প্রধানমন্ত্রী হওয়ার ইচ্ছা নেই প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী এইচ ডি দেবেগৌড়ার। তবে রাজনীতি থেকে অবসরও নেবেন না। কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গাঁধী প্রধানমন্ত্রী হলে, তাঁর পাশে থাকবেন জেডিএস প্রধান।

বৃহস্পতিবার সাংবাদিকদের এ কথা বলেছেন দেবেগৌড়া। আগে তিনি জানিয়েছিলেন, এ বার লোকসভা ভোটে আর দাঁড়াবেন না। পরে অবশ্য মত বদলে ফেলেন ৮৫ বছর বয়সী নেতা। কংগ্রেস-জেডিএস জোটের প্রার্থী হন কর্নাটকের টুমকুর লোকসভা আসনে। তাঁর বিরুদ্ধে বিজেপির প্রার্থী হয়েছেন জি এস বাসবরাজ।

গতকাল দেবেগৌড়া বলেন, ‘‘এটা ঠিকই, তিন বছর আগে ঘোষণা করেছিলাম, আমি আর ভোটে দাঁড়াব না। কিন্তু পরিস্থিতিটা এখন যে জায়গায় পৌঁছেছে, তাতে আমার না দাঁড়ানো ছাড়া অন্য কোনও উপায় ছিল না। আমি কিছুই লুকোতে চাই না। আমার কোনও উচ্চাকাঙ্খা নেই। তবে রাজনীতি থেকে অবসর নেব না। রাহুল গাঁধী প্রধানমন্ত্রী হলে ওঁর পাশে থাকব।’’

দিনকয়েক আগে তাঁর পুত্র, কর্নাটকের মুখ্যমন্ত্রী এইচ ডি কুমারস্বামী জানিয়েছিলেন, ভোটের পর তেমন পরিস্থিতির সৃষ্টি হলে সকলের মতামত নিয়ে দেবেগৌড়াও ফের প্রধানমন্ত্রী হতে পারেন।

আরও পড়ুন- দেশটাকে হিন্দু রাষ্ট্র বানাতে চাইছেন মোদী, তোপ দেবগৌড়ার​

আরও পড়ুন- দেবগৌড়ার অঙ্গুলিহেলনে সে দিন মন্ত্রিত্ব গিয়েছিল বজুভাইয়ের, কর্নাটকে এ বার উল্টে গেল পাশা​

পুত্রের সেই মন্তব্যের প্রেক্ষিতে সাংবাদিকরা তাঁকে প্রশ্ন করলে দেবেগৌড়া বলেন, ‘‘এই সব নিয়ে ভাবছি না। আমার বুকের পাটা রয়েছে প্রধানমন্ত্রীকে সংসদে দাঁড়িয়ে এই কথা বলার যে, রাহুল গাঁধী প্রধানমন্ত্রী হলে ওঁর পাশে থাকব।’’

২০১৯ লোকসভা নির্বাচনের ফল

আপনার মত