নেহরুকে ছোট করার জন্য পটেল-মূর্তি গড়িনি: মোদী
গুজরাতের অমরেলীর নির্বাচনী জনসভায় মোদী দাবি করেন, ‘‘প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী জওহরলাল নেহরুকে ছোট করার জন্য আমি সর্দার পটেলের মূর্তি তৈরি করিনি। পটেলের উচ্চতা এমনই যে তাঁর মূর্তি গড়তে অন্যদের ছোট করার প্রয়োজন নেই।’’
Modi

নরেন্দ্র মোদী।

পণ্ডিত জওহরলাল নেহরুকে খাটো করার জন্য নরেন্দ্র মোদী গুজরাতে সর্দার বল্লভভাই পটেলের মূর্তি গড়েছেন বলে অভিযোগ বিরোধীদের। আজ গুজরাতে দাঁড়িয়ে এর জবাব দিলেন প্রধানমন্ত্রী। 

এ দিন গুজরাতের অমরেলীর নির্বাচনী জনসভায় মোদী দাবি করেন, ‘‘প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী জওহরলাল নেহরুকে ছোট করার জন্য আমি সর্দার পটেলের মূর্তি তৈরি করিনি। পটেলের উচ্চতা এমনই যে তাঁর মূর্তি গড়তে অন্যদের ছোট করার প্রয়োজন নেই।’’ রাহুল গাঁধীর দলকে বিঁধে তিনি আরও বলেন, ‘‘কংগ্রেস বলে পটেল তাদের নেতা। কিন্তু কোনও কংগ্রেস নেতা এখনও স্ট্যাচু অব ইউনিটি দেখতে আসেননি।’’ মোদী এ দিনের বক্তৃতার বেশির ভাগটা দেন গুজরাতিতে। জনতার উদ্দেশে প্রধানমন্ত্রী প্রশ্ন ছুড়ে দেন, ‘‘গুগলে যখন বিশ্বের সব চেয়ে উঁচু মূর্তির খোঁজ করেন, তখন স্ট্যাচু অব ইউনিটি এবং গুজরাতের নাম ফুটে উঠতে দেখে গর্ব বোধ করেন না?’’ রাজনৈতিক শিবিরের মতে, পটেলের মূর্তিকে অস্ত্র করে ভোটে ফায়দা তুলতে মরিয়া প্রধানমন্ত্রী। সেই কারণে ঘুরিয়ে এ দিন পটেলের প্রশংসা করেন তিনি।

এ দিনের জনসভায় মোদী তুলে ধরেন সন্ত্রাসবাদ প্রসঙ্গও। প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘‘আমরা জম্মু-কাশ্মীরের দু’-আড়াইটি জেলার মধ্যেই সন্ত্রাসকে আটকে রাখতে পেরেছি। তাই গত পাঁচ বছরে দেশের অন্যত্র বোমা বিস্ফোরণ হয়নি।’’ পুলওয়ামায় জঙ্গি হানার জবাবে বালাকোটে হামলা চালিয়েছিল ভারতীয় বায়ুসেনা। তার পরেই ভারতের সঙ্গে আলোচনার প্রস্তাব দিয়েছিলেন পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। অমরেলী ও কর্নাটকের বাগলকোটের সভায় সেই প্রসঙ্গ তুলে মোদী বলেন, ‘‘মুম্বই হামলার পরে কংগ্রেস সরকার কান্নাকাটি করত। পাকিস্তান তাদের কথা শুনত না। এখন পাকিস্তান বলছে মোদী আমাদের আঘাত করছেন। পরিস্থিতি এমনই যে বালাকোট অভিযানের পরে পাকিস্তানি প্রধানমন্ত্রী আলোচনা শুরু করতে অনুরোধ করেছিলেন।’’ 

দিল্লি দখলের লড়াইলোকসভা নির্বাচন ২০১৯ 

অমরেলীর সভায় ডোকলাম প্রসঙ্গও এ দিন উঠে এসেছে মোদীর গলায়। তিনি বলেন, ‘‘গুজরাত থেকে আমি যা শিখেছি, সেটাই আমাকে চিনের সঙ্গে ডোকলাম সমস্যা মেটাতে সাহায্য করেছে।’’  

বাগলকোটের জনসভায় কর্নাটকের কংগ্রেস-জেডিএস জোট সরকারকে ‘অসহায়’ আখ্যা দিয়ে দিল্লিতে ‘শক্তিশালী’ সরকার গড়ার ডাক দেন মোদী। প্রধানমন্ত্রীর কথায়, কংগ্রেস সব সময় ‘অসহায়’ সরকার চেয়ে এসেছে। এক বার ‘অসহায়’ মুখ্যমন্ত্রী এইচ ডি কুমারস্বামীকে দেখুন। মোদীর অভিযোগ, ‘‘কংগ্রেস সার্জিকাল স্ট্রাইক এবং বালাকোটে ভারতীয় বায়ুসেনার অভিযানকে মেনে নিতে রাজি নয়। কংগ্রেস এবং তার জোটসঙ্গীরা শুধু নিজেদের স্বার্থ দেখে, জাতীয় স্বার্থ নয়।’’

২০১৯ লোকসভা নির্বাচনের ফল

আপনার মত