‘অন্ধ্রের জন্য বিশেষ মর্যাদা আদায়ের কাজটা কঠিন হল’, বললেন জগন
জগনের চিন্তা, অন্ধ্রের জন্য ‘বিশেষ’ রাজ্যের মর্যাদা কি আদায় করে আনা সম্ভব হবে, কেন্দ্রের কাছ থেকে? সেই দাবিই তো অন্ধ্রের মানুষের কাছে তাঁকে আলাদা পরিচিতি দিয়েছে।
JAGAN MOHAN REDDY

জগন্মোহন রেড্ডি।

একরাশ আনন্দের সঙ্গে গভীর চিন্তায় রয়েছেন অন্ধ্রপ্রদেশের ‘জায়ান্ট কিলার’ জগন্মোহন রেড্ডি। বিধানসভা ও লোকসভা ভোটে বিপুল জয় হয়েছে তাঁর মাত্র আট বছরের দল ওয়াইএসআর কংগ্রেসের। ঝড়ে কার্যত উড়েই গিয়েছে দোর্দণ্ডপ্রতাপ চন্দ্রবাবু নায়ডুর দল তেলুগু দেশম পার্টি (টিডিপি)। কিন্তু জগনের চিন্তা, অন্ধ্রের জন্য ‘বিশেষ’ রাজ্যের মর্যাদা কি আদায় করে আনা সম্ভব হবে, কেন্দ্রের কাছ থেকে? সেই দাবিই তো অন্ধ্রের মানুষের কাছে তাঁকে আলাদা পরিচিতি দিয়েছে।

এনডিটিভিকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে জগন বলেছেন, ‘‘মানুষ আমাদের প্রতি গভীর আস্থা রেখেছেন। আমাদের বিপুল ভাবে জিতিয়েছেন। ফলে, আমাদের দায়িত্বও এখন অনেকটাই বেড়ে গিয়েছে। বেড়ে গিয়েছে সেই দায়িত্ব পালনের চিন্তাটাও।’’

১৭৫ সদস্যের অন্ধ্র বিধানসভায় জগনের দল ওয়াইএসআর কংগ্রেস পেয়েছে ১৫৩টি আসন। গতকালই মুখ্যমন্ত্রী পদে ইস্তফা দিয়েছেন চন্দ্রবাবু। আগামী ৩০ মে বিজয়ওয়াড়ায় মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে শপথ নেবেন জগন্মোহন। লোকসভায় রাজ্যের যে ২৫টি আসন রয়েছে, তার মধ্যে জগনের দল পেয়েছে ২২টি।

এর পরেও জগনের চিন্তার কারণ, কেন্দ্রে বিপুল সংখ্যাগরিষ্ঠতা নিয়ে ফিরেছে বিজেপি। সরকার টিঁকিয়ে রাখার জন্য এনডিএর অন্য শরিকদের উপর তার আর নির্ভরতা নেই বললেই হয়। এই পরিস্থিতিতে এনডিএর বাইরে থেকে অন্ধ্রের জন্য ‘বিশেষ’ মর্যাদা আদায় করে আনা কতটা সম্ভব হবে, তা নিয়েই কিছুটা সংশয়ে জগন।

বলেছেন, ‘‘এই ধরনের রায়ের পর কতটা কী আদায় করা যাবে, দেখতে হবে। তবে লোকসভায় আমাদের রাজ্যেরও ২৫ জন প্রতিনিধি রয়েছেন। দাবি আদায় করে আনার পক্ষে যা কম নয়। তবে কাজটা কঠিন হল। আমি ব্যক্তিগত ভাবে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সঙ্গে দেখা করব। কেন এই মর্যাদা রাজ্যের প্রয়োজন, তাঁকে সব বোঝাব। মানছি, কাজটা কঠিনতর হল, কিন্তু দাবি থেকে সরে আসব না। লড়াইটা চালিয়ে যাব।’’

আরও পড়ুন- ‘ফকিরের ঝোলা আপনারা ভরে দিয়েছেন, এ জয় ভারতের সব নাগরিকের’​

আরও পড়ুন- এটা যে অশনি সঙ্কেত, মমতা কি মানবেন?​

জগন বলেছেন, ‘‘অনেক দায়িত্ব চেপেছে কাঁধে। আমি ঈশ্বরে বিশ্বাস করি। মানুষকে সেবা করার শক্তি, ক্ষমতা আমাকে ঈশ্বরই দিয়েছেন।’’

আট বছর আগে দল ওয়াইএসআর কংগ্রেস গড়ার সময় এই দাবিই শোনা গিয়েছিল জগনের গলায়। গত বছর যে যে দাবিতে এনডিএ ছেড়েছিলেন চন্দ্রবাবু, তারও অন্যতম ছিল এই দাবি।

২০১৯ লোকসভা নির্বাচনের ফল

আপনার মত