ঝড়বৃষ্টির সময় কি সব বিমান রেডার থেকে অদৃশ্য হয়ে যায়? মোদীর ‘মেঘনাদ তত্ত্ব’ নিয়ে খোঁচা রাহুলের
রাহুল এ দিন বলেন, ‘‘মোদীজি, দেশে যখন ঝড়বৃষ্টি হয়, তখন কি রেডার থেকে সব বিমান অদৃশ্য হয়ে যায়?’’
Modi-Rahul

‘মেঘ-রেডার’ তত্ত্ব নিয়ে মোদীকে খোঁচা রাহুলের। —ফাইল ছবি

নরেন্দ্র মোদীর ‘মেঘনাদ’ তত্ত্ব নিয়ে কম রসিকতা হয়নি। ১৯৮৮ সালে ডিজিটাল ক্যামেরা এবং ই-মেল ব্যবহারের দাবি নিয়েও সমালোচনার ঝড় উঠেছে। তার মধ্যেই এ বার মুখ খুললেন রাহুল গাঁধী। মধ্যপ্রদেশে প্রচারে গিয়ে মোদীকে উদ্দেশ্য করে রাহুলের প্রশ্ন, ঝড়বৃষ্টির সময় কি রেডার থেকে সব বিমান উধাও হয়ে যায়? অক্ষয়কুমারের সঙ্গে ‘অরাজনৈতিক’ সাক্ষাৎকার নিয়েও কটাক্ষ করেছেন রাহুল।

সম্প্রতি একটি বেসরকারি টিভি চ্যানেলে সাক্ষাৎকারে বালাকোটে  ভারতীয় বায়ুসেনার অভিযান নিয়ে বিস্ফোরক দাবি করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। তিনি বলেন, ‘‘রিভিউ বৈঠকের সময় (বালাকোট অভিযানের আগে) আচমকা আবহাওয়া খারাপ হয়ে পড়ে। মোটের উপর বিশেষজ্ঞদের মতামত ছিল, দিনক্ষণ পিছিয়ে দেওয়ার। ... আমিই তখন বলেছিলাম, আকাশে মেঘ থাকায় আমাদের সুবিধা হবে। আমাদের যুদ্ধবিমান ধরা পড়বে না পাক রেডারে।’’

মোদীর সাক্ষাৎকার ওই চ্যানেলে সম্প্রচারিত হওয়ার পর থেকেই সোশ্যাল মিডিয়ায় ব্যাপক সমালোচনা শুরু হয়। চলতে থাকে বিপুল রসিকতা, ব্যঙ্গ-বিদ্রুপ। তবে কংগ্রেস সভাপতি এ পর্যন্ত চুপই ছিলেন। মুখ খুললেন মঙ্গলবার মধ্যপ্রদেশের নিমুচে শেষ দফার প্রচারে গিয়ে। রাহুল এ দিন বলেন, ‘‘মোদীজি, দেশে যখন ঝড়বৃষ্টি হয়, তখন কি রেডার থেকে সব বিমান অদৃশ্য হয়ে যায়?’’

কিছু দিন আগেই নিজের বাসভবনে মোদী একটি সাক্ষাৎকার দেন বলিউড সুপারস্টার অক্ষয় কুমারকে। বলিউডের খিলাড়ি এই কথোপকথনকে সম্পূর্ণ অরাজনৈতিক বলে প্রচার করেছিলেন। সেই নিয়েও এদিন কটাক্ষ করতে ছাড়েননি রাহুল। এ নিয়ে কংগ্রেস সভাপতির মন্তব্য, ‘‘মোদীজি, আপনি আমাদের শিখিয়েছেন, কীভাবে আম খেতে হয়। এ বার দেশবাসীকে বলুন, বেকার যুবক-যুবতীদের চাকরির জন্য কী করেছেন।’’ আক্কির সঙ্গে ওই সাক্ষাৎকারে মোদী বলেছিলেন, তিনি ছোটবেলা থেকে এবং এখনও আম খেতে ভালবাসেন। আবার ২০১৪ সালের লোকসভা ভোটের আগে বছরে ২ কোটি বেকারকে চাকরির প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন। কিন্তু সেই প্রতিশ্রুতি কার্যত পূরণ হয়নি। বরং ৪৫ বছরে বেকারত্বের হার সবেচেয়ে বেশি হয়েছে মোদী জমানাতেই। একই সঙ্গে মোদীর আমপ্রীতি এবং চাকরির প্রতিশ্রুতিকে জুড়ে খোঁচা দিয়েছেন রাহুল।

আরও পডু়ন: ঘাটালের ভোট মিটতেই ভারতীকে ভবানী ভবনে ডেকে সিআইডি জেরা

আরও পড়ুন: ফুলের পাপড়ি ঢাকল লেনিন সরণি, অমিত শাহের বর্ণময় রোড শো কলকাতার রাজপথে

গত ১৪ ফেব্রুয়ারি পুলওয়ামায় আত্মঘাতী জঙ্গি হানায় ৪০ জন সিআরপিএফ জওয়ানের মৃত্যু হয়েছিল। তার পর থেকেই ভারত-পাক সীমান্তে তৈরি হয়েছিল যুদ্ধের পরিস্থিতি। সেই প্রেক্ষাপটেই ২৬ ফেব্রুয়ারি ভোররাতে পাকিস্তানের বালাকোটে ঢুকে জঙ্গি ঘাঁটিতে বোমা ফেলে আসে ভারতীয় বায়ুসেনা। টিভি চ্যানেলে সাক্ষাৎকারে সেই অভিযানের প্রসঙ্গ টেনেই ‘মেঘ’ এবং ‘রেডার’-এর প্রসঙ্গে জানান মোদী। মোদীর সেই মন্তব্য নিয়ে এখনও সোশ্যাল মিডিয়ায় ঘোরাফেরা করছে মিম, ব্যঙ্গ বিদ্রুপ। এমনকি, আজ মঙ্গলবারও বলিউড তারকা তথা কংগ্রেস প্রার্থী ঊর্মিলা মাতণ্ডকর মোদীর ওই মন্তব্য ধরে কটাক্ষ করেছেন। বলেছেন, ‘‘আজ মেঘমুক্ত আকাশ, তাই আমার পোষ্য রেডারের সিগন্যাল পাচ্ছে।’’ সিপিএম  সাধারণ সম্পাদক সীতারাম ইয়েচুরি ইতিমধ্যেই কমিশনের দ্বারস্থ হয়েছেন। তাঁর অভিযোগ, সামরিক অভিযানের খুঁটিনাটি সংবাদ মাধ্যমে তথা জনসমক্ষে এনে নির্বাচনী আচরণবিধি ভঙ্গ করেছেন প্রধানমন্ত্রী।

২০১৯ লোকসভা নির্বাচনের ফল

আপনার মত