এ যেন আক্ষরিক অর্থেই ‘চুলচেরা’ বিশ্লেষণ! হেয়ার স্টাইলিশ জাভেদ হাবিবের বিজেপিতে যোগ দেওয়ার পর থেকে সোশ্যাল মিডিয়া সরগরম তাতেই।

হাবিব সোমবার বিজেপিতে যোগ দিয়ে নিজে বলেছেন, ‘‘এত দিন চুলের চৌকিদার ছিলাম, এ বার দেশের চৌকিদার হলাম।’’ তার পর থেকেই বিজেপিতে জাভেদের ‘চৌকিদারি’র জেরে কী কী হতে পারে তা নিয়েই কল্পনায় মশগুল ছিল সোশ্যাল মিডিয়া।

টুইটারে অজস্র মিমে দেখা গিয়েছে সেই কল্পনারই প্রকাশ। হেয়ার স্টাইলিস্ট হাবিবের হাতের ছোঁয়ায় নরেন্দ্র মোদী-অমিত শাহের চুলের কায়দা কেমন হতে পারে তা নিয়ে মিম বানিয়েছেন অনেকে। বাদ যাননি যোগী আদিত্যনাথও। মিমে চুলের বাহার দেখা গিয়েছে অনুপম খেরের টাকমাথাতেও! টুইটারে রসিকতা চলেছে, এ সবই নাকি হাবিবের বিজেপিতে যোগদানের মহিমা!

দিল্লি দখলের লড়াইলোকসভা নির্বাচন ২০১৯ 

নানা রঙের, নানা ঢংয়ের চুল লাগানো মোদী-অমিতের ছবি সোমবার রাত থেকেই ঘুরছিল টুইটার-ফেসবুকে। তা ঘুরেছে তৃতীয় দফার ভোটের দিন, মঙ্গলবারেও। বছর দেড়েক আগে দুর্গাপুজোয় একটি বিজ্ঞাপন ঘিরে বিজেপি শিবিরের তোপের মুখে পড়েছিলেন হাবিব। বিজ্ঞাপনটিতে আঁকা কার্টুনে ছিল, দুর্গা সদলবলে জাভেদ হাবিবের বিউটি সালোঁয় গিয়েছেন। বিজেপি সমর্থকরা বিজ্ঞাপনটিকে দেবদেবীর প্রতি অবমাননাকর বলে সমালোচনা করায় ক্ষমাও চাইতে হয়েছিল জাভেদ হাবিবের সংস্থাকে। রঙ্গ-রসিকতার মাঝেই বিজেপির সঙ্গে জাভেদ হাবিবের সেই অতীতের কথাও সোশ্যাল মিডিয়ায় স্মরণ করিয়ে দিয়েছেন অনেকে। 

হাবিবের মতোই আরেক তারকার বিজেপিতে আসা নিয়ে ভোটের দিন তোলপাড় হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়া। তিনি হলেন সানি দেওল। মঙ্গলবার দিনভরই টুইটারে #ভোটিংরাউন্ড৩ ও #ফেজ৩-কে টক্কর দিয়েছে #সানিদেওল। সকালের দিকে ভোট দেওয়ার হ্যাশট্যাগগুলি উপরের দিকে থাকলেও পরে সেগুলিকে ছাপিয়ে গিয়েছেন সানি। একজনের রসিকতা, এরপর হয়তো সানি রামমন্দিরের শুনানি নিয়ে বলবেন সেই বিখ্যাত সংলাপ, ‘‘তারিখ পে তারিখ!’’ টুইটার জনপ্রিয়তায় সানি দেওলের সঙ্গে ‘লড়াই’ চলেছে বিজেপির প্রচারের হ্যাশট্যাগ, #আয়েগাতোমোদীহি-রও।

টুইটারে পিছিয়ে পড়লেও গুগল সার্চে অবশ্য সানি দেওলকে হারিয়ে দিয়েছে ভোট নিয়ে দেশবাসীর উৎসাহ। আইপিএল, সানি দেওল, জাভেদ হাবিবের মতো বিষয়কে ছাড়িয়ে, দ্বিতীয় দফার মতোই এ দিনও সার্চে শীর্ষে ছিল ‘হাউ টু ভোট ইন্ডিয়া’। এ দিন অবশ্য সার্চের সংখ্যা ছিল অনেক অনেক বেশি। তা ছাড়িয়ে গিয়েছে পঞ্চাশ লক্ষ। ‘ভিভিপ্যাট’, ‘ভোটার তালিকা’-র মতো বিষয়ও এসেছে সবচেয়ে জনপ্রিয় ২০টি সার্চের তালিকায়।