• সংবাদ সংস্থা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

উচ্চবর্ণের সঙ্গে প্রেম! দলিত যুবককে রড, পাথর দিয়ে পিটিয়ে মারল প্রেমিকার পরিবার

representative
প্রতীকী চিত্র।

উচ্চবর্ণের মেয়ের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তোলার জন্য দলিত যুবককে নৃশংসভাবে পিটিয়ে মারল প্রেমিকার পরিবারের লোকজন। হাসাপাতালে মৃত্যুকালীন জবানবন্দিতে গোটা ঘটনার কথা জানিয়েছেন ওই যুবক। সেই জবানবন্দির ভিত্তিতে অভিযুক্ত ছ’জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। তাঁদের মধ্যে দু’জন নাবালক। ঘটনাটি সম্প্রতি ঘটেছে পুণের সওদাগরে।

পিটুনিতে মৃত ওই দলিত যুবকের নাম বিরাজবিলাস জগতপ। ২০ বছরের ওই যুবকের সঙ্গে এক যুবতীর প্রেমের সম্পর্ক ছিল। বিরাজ দলিত বলে সেই সম্পর্কে আপত্তি ছিল মেয়েটির পরিবারের লোকজনের। বিরাজের দাদা সাগর জগতপ জানিয়েছেন, ৭ জুন রাত ৯টা নাগাদ মেয়েটির পরিবারের লোক বিরাজকে ফোন করেন। প্রেমের সম্পর্ক নিয়ে কথা বলার জন্যই ডাকা হয় তাঁকে। সেই ফোন পেয়ে প্রেমিকার বাড়ি গেলে মেয়েটির পরিবারের লোক তাঁকে তীব্র গালিগালাজ করেন। জাত নিয়ে অবমাননাকর মন্তব্যও করেন।সেখান থেকে বাইক নিয়ে বাড়ি ফেরার সময় বিরাজের উপর চড়াও হন মেয়েটির পরিবারের লোকজন।

বিরাজের কাকা এ ব্যাপারে বলেছেন, ‘‘ আমার ভাইপো খুব সাধারণ ছিল। সে দিন রাতে বাড়ি ফেরার সময় তাঁর বাইকে টেম্পো নিয়ে ধাক্কা মারে মেয়েটির পরিবারে লোক। ও রাস্তায় পড়ে গেলে লাঠি, রড দিয়ে পেটায় তাঁকে। বড় পাথর দিয়েও মারে।’’

আরও পড়ুন: সংক্রমণে মুম্বই ছাপিয়ে গেল উহানকে, দেশে আক্রান্ত ২.৭৬ লক্ষ

বিরাজের পরিবারে লোকের অভিযোগের ভিত্তিতে মামলা দায়ের করে পিম্পরি ছিনছায়াদ থানার পুলিশ। তার পর মেয়েটির বাবা-সহ মোট ছ’জন গ্রেফতার করে পুলিশ। তাঁদের বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধির একাধিক ধারায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। শ্রীধর যাদব নামের এক পুলিশ অফিসার জানিয়েছেন, মেয়েটির বাবা জগদীশ মুরলিধর কাটে বিরাজের কোনও আবেদনে কান দেননি। তাঁর জাত নিয়ে অবমাননা করার পাশাপাশি সে যখন আহত হয়ে পড়েছিল তখন তাঁর মুখে থুতুও ছিটিয়েছিলেন।

মৃত্যুর আগে বয়ানে বিরাজ জানিয়েছিলেন, তাঁর প্রেমিকার বাবা জগদীশ তাঁকে বলেন, ‘‘আমার মেয়ের সঙ্গে সম্পর্ক করার সাহস হয় কী করে? আমার মেয়ের সঙ্গে প্রেম করার কোনও যোগ্যতাই নেই তোর।’’

আরও পড়ুন: করোনার ৬ মাস: কী কী বুঝে গেলাম আমরা, কী কী এখনও অস্পষ্ট

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন