ভারতীয় জাল নোট চক্রের অন্যতম পাণ্ডা হিসেবে পরিচিত ইউনুস আনসারিকে গ্রেফতার করল নেপাল। তার সঙ্গে আরও পাঁচ জনকে গ্রেফতার করেছে সে দেশের পুলিশ। তাদের মধ্যে তিন জন পাকিস্তানের নাগরিক।

ভারতের দীর্ঘদিনের দাবি, নেপালে ভারতীয় জাল নোটের বড় চক্র চালাচ্ছে পাকিস্তানি গুপ্তচর সংস্থা আইএসআই। সে দেশে দাউদ ইব্রাহিম গোষ্ঠীর শিকড়ও রয়েছে। তাদের মাধ্যমেই ভারতে জাল নোট পাচারের কাজ করছে আইএসআই। নেপালের প্রাক্তন মন্ত্রী সেলিম মিয়াঁ আনসারির ছেলে ইউনুস সেই চক্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে বলেও মনে করেন ভারতীয় গোয়েন্দারা।

নেপাল সরকার জানিয়েছে, আজ কাতার থেকে ২ হাজার টাকার জাল নোট ভর্তি ব্যাগ নিয়ে নেপালে পৌঁছয় মহম্মদ আখতার, নাদিয়া আনওয়ার ও নাসিরুদ্দিন নামে তিন পাক নাগরিক। কাঠমান্ডুর ত্রিভুবন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে তাদের জন্য অপেক্ষা করছিল ইউনুস আনসারি। তাদের সকলকেই গ্রেফতার করা হয়। ইউনুসের সহযোগী হিসেবে পরিচিত সোহেল খান এবং তার গাড়ির চালক সুজানা রানাভাটকেও গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

জাল নোট চক্রে জড়িত থাকার মামলায় আগেও দু’বার কারাদণ্ড হয়েছে ইউনুসের। ২০০৯ সালের ২ জানুয়ারি নেপালের ত্রিপুরেশ্বর এলাকার একটি হোটেল থেকে তাকে গ্রেফতার করেছিল পুলিশ। ২০১৪ সালের ২ ফেব্রুয়ারি তাকে একই অভিযোগে ফের গ্রেফতার করা হয়। ২০১১ সালের ১০ মার্চ নেপালের জেলেই তাকে লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে এক ভাড়াটে খুনি।