সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

বিতর্কে ইস্তফা মন্ত্রীর, কেরলের আঙুল বঙ্গে

A. K. Saseendran

Advertisement

বছর ঘোরার আগেই ফের অস্বস্তিতে কেরলে পিনারাই বিজয়নের সরকার। স্বজনপোষণ বির্তকে মন্ত্রিসভা থেকে সরতে হয়েছিল শিল্পমন্ত্রী ই পি জয়রাজনকে। এ বার এক মহিলার সঙ্গে অশালীন আচরণের অভিযোগ ওঠায় ইস্তফা দিলেন সে রাজ্যের পরিবহণমন্ত্রী এ কে শশীন্দ্রন। মুখ্যমন্ত্রী বিজয়নকে চিঠি দিয়ে তিনি জানিয়েছেন, অভিযোগের তদন্ত শেষ না হওয়া পর্যন্ত মন্ত্রিসভায় থাকতে চান না।

এক মহিলার সঙ্গে অশালীন আচরণ করছেন পরিবহণমন্ত্রী, এই সংক্রান্ত একটি ভিডিও ক্লিপিং সম্প্রচারিত হয়েছিল কেরলের একটি টিভি চ্যানেলে। মন্ত্রী ওই মহিলার প্রতি অশালীন মন্তব্য করেছেন বলেও অভিযোগ। এর পরেই সিপিএমের রাজ্য নেতৃত্বের পরামর্শে পদত্যাগ করেছেন শশীন্দ্রন। তবে রবিবার তিনি বলেন, ‘‘পদত্যাগ করা মানেই অভিযোগ মেনে নেওয়া নয়। আমি কোনও খারাপ মন্তব্য করিনি। তদন্তের স্বার্থেই আমি সরে দাঁড়ালাম।’’ কয়েক দিন আগেই কেরলে গিয়ে সিপিএমের সাধারণ সম্পাদক সীতারাম ইয়েচুরি বলেছিলেন, যেখানে বাম সরকারের যা ভুল-ভ্রান্তি হচ্ছে, শীঘ্রই শুধরে নেওয়া হবে। তার পরেই অভিযোগ ওঠামাত্র মন্ত্রীর ইস্তফা।

এই ঘটনাকে স্বচ্ছতার দৃষ্টান্ত হিসাবে দেখিয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের দিকে পাল্টা প্রশ্ন তুলছে সিপিএম। দলের কেন্দ্রীয় কমিটির এক সদস্যের বক্তব্য, ‘‘নির্দোষ প্রমাণিত না হওয়া পর্যন্ত কেরলের মন্ত্রী সরে গিয়েছেন। পশ্চিমবঙ্গে দুর্নীতির গুরুতর অভিযোগ সত্ত্বেও কোনও মন্ত্রীকে পদ থেকে সরাননি তৃণমূল নেত্রী। তাঁর সৎসাহস থাকলে মন্ত্রীদের সরিয়ে তদন্তের মুখোমুখি হতে বলুন!’’

সবাই যা পড়ছেন

Advertisement

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন