প্রধানমন্ত্রী আবাস যোজনার সুবিধাপ্রাপকদের তালিকায় বৈষম্যের পাশাপাশি বিভিন্ন সরকারি প্রকল্পের সুবিধা থেকে পরিকল্পিত ভাবে সংখ্যালঘুদের বঞ্চিত করা হচ্ছে বলে অভিযোগ তুলেছে কৃষক মুক্তি সংগ্রাম সমিতি। তার পরিপ্রেক্ষিতে হাইলাকান্দিতে বন্‌ধ  ডাকা হয়েছিল।

আজ সকালে মিজোরামের ভৈরবী থেকে আসা ট্রেন লালার কৃষ্ণপুরে আটকে দেয় অবরোধকারীরা। পুলিশ গিয়ে অবরোধ হঠায়। বন্‌ধে জেলার বেশিরভাগ সরকারি কার্যালয় ছিল বন্ধ। রাস্তায় দেখা মেলেনি যানবাহনের। বন্‌ধ সমর্থকরা জাতীয় সড়ক অবরোধ করেন। বন্‌ধে সমর্থন জানিয়েছিলেন হাইলাকান্দির তিন ইউডিএফ বিধায়ক। শহরে বন্‌ধের প্রভাব সামান্য কম থাকলেও আলগাপুর, সাহাবাদ, মনাছড়ার মতো গ্রামীণ এলাকায় জনজীবন পুরোপুরি বিপর্যস্ত হয়। কৃষক মুক্তি সংগ্রাম সমিতির নেতা জহিরউদ্দিন লস্কর, ফয়েজ আহমেদ বন্‌ সর্বাত্মক হয়েছে বলে দাবি করেন। সংখ্যালঘুদের প্রতি বঞ্চনা চলতে থাকলে পরে তাঁরা বড় আন্দোলনের হুঁশিয়ারি দেন। হাইলাকান্দির ডিএসপি ফয়েজ আহমেদ জানান, শ’দেড়েক অবরোধকারীকে গ্রেফতার করা হয়।