রাজ্যে পঞ্চায়েত ভোটের মনোনয়ন ও প্রচারের সময়ে শাসক বিজেপির সন্ত্রাসের অভিযোগ জানাতে গিয়ে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের সঙ্গে বিতণ্ডায় জড়ালেন সিপিএমের সাংসদ ঝর্না দাস বৈদ্য। শাহ তাঁকে বিজেপিতে চলে আসার প্রস্তাব দিলে মুখের উপরে ‘না’ বলে এসেছেন ত্রিপুরা থেকে রাজ্যসভার সাংসদ।

ত্রিপুরায় পঞ্চায়েত ভোট ২৭ জুলাই। ইতিমধ্যেই ৮৬% আসন বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জিতে নিয়েছে বিজেপি। পঞ্চায়েত ভোট-পর্বে সন্ত্রাসের অভিযোগ জানানোর জন্যই কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সময় চেয়েছিলেন ঝর্না। সিপিএম সূত্রের দাবি, ঝর্না দেখা করতে গেলে শাহ তাঁকে বলেন, সিপিএম তো শেষ হয়ে গিয়েছে! সাংসদ বরং বিজেপিতে যোগ দিন! ঝর্না উত্তরে বলেন, তিনি কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর কাছে আনুষ্ঠানিক ভাবে অভিযোগ জানাতে এসেছেন।

বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতির কাছে আসেননি। তাঁরা মতাদর্শগত ভাবে বিজেপির বিরোধী এবং সিপিএম ‘শেষ’ হয়ে গেলেও সেই দলেই থাকবেন। সিপিএমের অভিযোগ, কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর দফতরকে কী ভাবে বিজেপির দলীয় স্বার্থে কাজে লাগানোর চেষ্টা হচ্ছে, এই ঘটনা তারই দৃষ্টান্ত।

এবার শুধু খবর পড়া নয়, খবর দেখাও।সাবস্ক্রাইব করুনআমাদেরYouTube Channel - এ।