ভারতের উপর দিয়ে বয়ে চলা নদীর জল পকিস্তানকে দেওয়া হবে না বলে সাফ জানিয়ে দিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। 

হরিয়ানার চরখি দাদরিতে ভোট প্রচারে গিয়ে মোদী আজ বলেন, ‘‘গত ৭০ বছর ধরে হরিয়ানার এই এলাকা তথা ভারতের কৃষকদের অধিকারে থাকা যে জল পাকিস্তানে বয়ে গিয়েছে, মোদী সেই জল বন্ধ (পাকিস্তানে যাওয়া) করে দেবে। ওই জল আপনাদের ঘরে ঘরে পৌঁছবে।’’ প্রধানমন্ত্রীর মতে, এই জলের উপর অধিকার রয়েছে হরিয়ানা আর রাজস্থানের কৃষকদের। অতীতে যা বন্ধ করা হয়নি। এর সঙ্গেই প্রধানমন্ত্রীর মন্তব্য, ‘‘মোদী আপনাদের লড়াই লড়বে।’’ কাশ্মীর পরিস্থিতি নিয়ে ইসলামাবাদ-নয়াদিল্লির সম্পর্কের টানাপড়েনের মধ্যে পাকিস্তানকে জল দেওয়া প্রসঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর আজকের বক্তব্য তাৎপর্যের। এখন ইসলামাবাদ এ ব্যাপারে কী প্রতিক্রিয়া জানায়, সেটা দেখার। তবে করতারপুর প্রকল্পের কাজ শেষের মুখে আসায় তিনি যে খুশি, সে কথাও জানিয়ে দেন মোদী।

পাকিস্তানকে নিয়ে কড়া অবস্থান নিলেও আজ ভোটের সভায় প্রধানমন্ত্রীর প্রচারের অস্ত্র হয়ে উঠেছিল চিনা প্রেসিডেন্ট শি চিনফিংয়ের একটি মন্তব্য। রাজ্যের দাদরি বিধানসভা কেন্দ্রে বিজেপির প্রার্থী হয়েছেন কুস্তিগীর ববিতা ফোগট। তাঁর জীবনকে নিয়ে তৈরি ‘দঙ্গল’ সিনেমাটির সাফল্যের পরে ২৯ বছর বয়সি ববিতার জনপ্রিয়তা এখন ঘরে ঘরে। ববিতার রাজনীতিতে প্রবেশ ও দলের প্রার্থী হওয়াকে স্বাগত জানিয়ে মোদী আজ  জানান, সম্প্রতি চিনা প্রেসিডেন্টের সঙ্গে তাঁর কথোপকথনের সময়ে শি তাঁকে জানিয়েছেন, দঙ্গল সিনেমাটি দেখেছেন তিনি। যেখানে ভারতের মেয়েদের কৃতিত্বকে তুলে ধরা হয়েছে। মোদী বলেন, ‘‘চিনা প্রেসিডেন্টের ওই কথা শুনে আমি গর্বিত। হরিয়ানার মেয়েরা দেখিয়ে দিয়েছে, সব জায়গাতেই তাঁরা সেরা হতে পারে।’’ হরিয়ানার মেয়েদের উন্নতির কথা ভেবে এ বারের দেওয়ালি তাঁদের জন্য উৎসর্গ করার আহ্বান জানান মোদী। 

ভোটের সভায় দাঁড়িয়েই আজ প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘‘ভোটের জন্য আমি হরিয়ানায় আসি না। এ রাজ্যে বিজেপির হয়ে প্রচার করতেও আসিনি। বিজেপির হয়ে ভোটও চাইছি না। আসলে হরিয়ানা আমাকে ডাকে। এখানকার মানুষেরা আমাকে অনেক ভালবাসেন। তাই হরিয়ানায় আসা আমি আটকাতে পারি না।’’