প্রধানমন্ত্রী পুরস্কার পাবেন ‘স্বচ্ছ ভারত’ অভিযানের জন্য। নিতে বারণ করল সঙ্ঘ। প্রধানমন্ত্রী দফতরের প্রতিমন্ত্রী জিতেন্দ্র সিংহ আজ ঘোষণা করেন, আসন্ন মার্কিন সফরে একটি পুরস্কার পেতে চলেছেন নরেন্দ্র মোদী। ‘স্বচ্ছ ভারত অভিযান’-এর সাফল্যের জন্য এই পুরস্কার দেবে ‘বিল অ্যান্ড মেলিন্ডা গেটস ফাউন্ডেশন’ (বিএমজিএফ)। কিন্তু সঙ্ঘ-ঘনিষ্ঠ স্বদেশী জাগরণ মঞ্চ আপত্তি তুলল এই পুরস্কারে। সংগঠনের নেতা অশ্বিনী মহাজন প্রকাশ্যেই বলেছেন— এই পুরস্কার গ্রহণ করাটা উচিত হবে কি না, বিবেচনা করে দেখতে বললেন প্রধানমন্ত্রীকে। 

কয়েক বছর ধরেই বিএমজিএফ-এর কার্যকলাপের বিরুদ্ধে সরব স্বদেশী জাগরণ মঞ্চ। তাদের দাবি, বিএমজিএফ আদৌ মানবহিতৈষী নয়। মানব কল্যাণের আড়ালে এরা ব্যবসা করে। ভারতের স্বাস্থ্য ক্ষেত্রে, বিশেষ করে টিকাকরণ নিয়ে তাদের আগ্রহ আছে। প্রধানমন্ত্রীকে পুরস্কার দেওয়াটাও উদ্দেশ্যমূলক। রিজার্ভ ব্যাঙ্কে বোর্ডের সদস্য হিসেবে নচিকেত মোর যোগ দেওয়ার সময়েও স্বার্থের সংঘাত বলে রে-রে করে ওঠে সঙ্ঘ। কারণ, বিএমজিএফ সংস্থার সঙ্গেই যুক্ত ছিলেন নচিকেত। 

আজও অশ্বিনী মহাজন জানান, বিএমজিএফ সংস্থা অনৈতিক ও অবৈধ মেডিক্যাল পরীক্ষা করে। এদের অতীত নিয়েও ধোঁয়াশা রয়েছে। ভারতে ব্যবসা করাই লক্ষ্য তাদের। ফলে পুরস্কার নেওয়ার সিদ্ধান্ত পুনর্বিবেচনা করা উচিত প্রধানমন্ত্রীর।