করতারপুর করিডর এবং শিখ বিরোধী দাঙ্গা নিয়ে ফের কংগ্রেসকে নিশানা করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। 

গুরু গোবিন্দ সিংহের স্মারক মুদ্রা প্রকাশ অনুষ্ঠানে আজ প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘‘কংগ্রেসের ভুল সংশোধন করাটাই আমার নিয়তি।’’ মোদী যখন কংগ্রেসের সমালোচনায় মুখর তখন মঞ্চে উপস্থিত প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিংহ।

লোকসভা নির্বাচন যত এগিয়ে আসছে, করতারপুর করিডর এবং শিখ দাঙ্গা নিয়ে ততই সুর চড়াচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী। আজ মোদী বলেন, ‘‘করতারপুর নিয়ে ১৯৪৭-এর অগস্টেই ভুল হয়েছিল। করিডর তৈরি করে সেই ভুলের প্রায়শ্চিত্ত করা হচ্ছে। ওই জায়গা আমাদের দেশ থেকে মাত্র কয়েক কিলোমিটার দূরে। কিন্তু স্বাধীনতার সময় তা ভারতের অন্তর্ভুক্ত হল না। করিডর তৈরি করে সেই ক্ষতি মেরামতের চেষ্টা হচ্ছে।’’ মোদীর ওই সমালোচনার সময় মনমোহন ছাড়াও অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন দেশের অবসরপ্রাপ্ত প্রধান বিচারপতি জে এস কেহর ও একাধিক শিখ নেতা। করতারপুর করিডর তৈরিকে নিজের সরকারের সাফল্য হিসেবে দেখাতে চেষ্টার ত্রুটি করছেন না মোদী। তিনি বলেন, ‘‘পাকিস্তানে থাকা ওই পবিত্র জায়গাকে আর দূরবীন দিয়ে দেখতে হবে না। করিডর দিয়ে গিয়ে তাঁরা করতারপুরে পৌঁছতে পারবেন।’’

শিখ দাঙ্গায় অভিযুক্তদের শাস্তি নিশ্চিত করতে কেন্দ্র যে সব রকম ভাবে চেষ্টা চালাবে, তা-ও স্পষ্ট করে দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। কংগ্রেসকে খোঁচা দিয়ে তিনি বলেন, ‘‘কয়েক দশক ধরে যে সব মা-বোন-ভাই-মেয়েরা চোখের জল ফেলছেন, তাঁরা সুবিচার পাবেন।’’ সম্প্রতি গুরদাসপুরের জনসভাতেও করতারপুর করিডর এবং শিখ বিরোধী দাঙ্গা নিয়ে কংগ্রেসকে নিশানা করেছিলেন তিনি।