ভারত মহাসাগরে আধিপত্য বিস্তারের লক্ষ্যে নানা পদক্ষেপ করছে চিন। কিন্তু জরুরি অবস্থা সামাল দেওয়ার মতো সরঞ্জাম নেই ভারতের নৌবাহিনীর হাতে। যে হেলিকপ্টারগুলি ব্যবহৃত হচ্ছে, সেগুলিও মান্ধাতার আমলের পুরনো। তাই এ বার নৌবাহিনীকে ঢেলে সাজার পরিকল্পনা নিল প্রতিরক্ষা মন্ত্রক।

মঙ্গলবার প্রতিরক্ষা মন্ত্রকের তরফে জানানো হয়েছে, নৌবাহিনীকে ঢেলে সাজাতে আধুনিক প্রযুক্তিতে তৈরি ১১১টি হেলিকপ্টার কেনার পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে। তার জন্য খরচ পড়বে প্রায় ৩০০ কোটি মার্কিন ডলার। প্রতিরক্ষা সরঞ্জাম কেনাবেচা সংক্রান্ত কাউন্সিল (ডিএসি) ইতিমধ্যেই তাতে সায় দিয়েছে। তল্লাশি অভিযান, উদ্ধারকার্য, যাত্রী এবং ক্ষেপণাস্ত্র পরিবহণের কাজে নয়া হেলিকপ্টারগুলি ব্যবহার করা হবে।

নৌবাহিনীর জন্য কপ্টার তৈরিতে এয়ারবাস, লকহিড মার্টিন এবং বেল হেলিকপ্টার্সের মতো বিদেশি সংস্থার কাছ থেকে দর চাওয়া হতে পারে বলে জানিয়েছে প্রতিরক্ষা মন্ত্রক। তবে ১১১টি হেলিকপ্টারের মধ্যে ৯৫টিই তৈরি হবে ভারতে। কেন্দ্রীয় সরকারের মেক ইন ইন্ডিয়া প্রকল্পের আওতায়। দেশীয় সংস্থার হাতেই সেগুলি তৈরির বরাত দেওয়া হবে। সেইমতো আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে দেশের বিভিন্ন সংস্থাকে। প্রকল্পে সামিল হতে চাইলে প্রতিরক্ষামন্ত্রকের ওয়েবসাইটে আবেদন করতে হবে, যার ভিত্তিতে শুরু হবে টেন্ডার প্রক্রিয়া।

আরও পড়ুন: মাঙ্কি ক্যাপে মুখ লুকিয়ে কে ঢুকলেন শিলংয়ের সিবিআই দফতরে?​

আরও পড়ুন: ভয়ঙ্কর গুজব ছড়ানো হচ্ছে রাজ্যের কিছু জায়গায়, সতর্ক থাকুন, এ সবই মিথ্যে​

এখনও পর্যন্ত এই প্রকল্পে যে ভারতীয় সংস্থাগুলির নাম উঠে আসছে সেগুলি হল, টাটা অ্যাডভান্সড সিস্টেমস, মহিন্দ্রা ডিফেন্স, আদানি ডিফেন্স, এল অ্যান্ড টি, ভারত ফোর্জ এবং রিলায়েন্স ইনফ্রাস্ট্রাকচার। আগামী দু’মাসের মধ্যে আবেদন জানাতে হবে তাদের। বিদেশি সংস্থাগুলিকে সময় দেওয়া হয়েছে তিনমাস।

(দেশজোড়া ঘটনার বাছাই করা সেরা বাংলা খবর পেতে পড়ুন আমাদের দেশ বিভাগ।)