প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী চন্দ্রশেখরকে নিয়ে লেখা একটি বই প্রকাশ করবেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। তার আগে চন্দ্রশেখরের ছেলে নীরজ সমাজবাদী পার্টি ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দিতে চলেছেন। 

বাবার নির্বাচনী কেন্দ্র বালিয়া থেকে লোকসভা ভোট লড়তে চেয়েছিলেন নীরজ। অখিলেশ যাদব রাজি হননি। নীরজের সঙ্গে অখিলেশের দূরত্ব তৈরি হচ্ছিল অনেকদিন থেকেই। নীরজ এই মুহূর্তে সমাজবাদী পার্টি থেকে রাজ্যসভারও সাংসদ। আজ শুধু অখিলেশের দল নয়, রাজ্যসভা থেকেও ইস্তফা দিয়েছেন তিনি। রাজ্যসভার চেয়ারম্যান তথা উপরাষ্ট্রপতি বেঙ্কাইয়া নায়ডু ইস্তফাপত্র গ্রহণ করেছেন বলেও সূত্রের দাবি। আগামিকাল দলের সাংসদদের নিয়ে অখিলেশের বৈঠক করার কথা। আর কালই দুপুর ১২টা নাগাদ আনুষ্ঠানিক ভাবে বিজেপিতে যোগ দেওয়ার কথা নীরজের। 

রাজ্যসভায় নীরজের মেয়াদ আগামী বছর নভেম্বরে শেষ হওয়ার কথা। আর উত্তরপ্রদেশে বিজেপির সংখ্যাগরিষ্ঠতাও আছে। ফলে সে রাজ্য থেকে তাঁকে ফের রাজ্যসভায় জিতিয়ে আনা সম্ভব। এতে বিজেপিরই আরও একটি আসন বাড়বে। 

রাজ্যসভায় নিয়ম মাফিক সংখ্যাগরিষ্ঠতা পেতে এখনও অনেক বছর অপেক্ষা করতে হত বিজেপিকে। কিন্তু তারা ধাপে ধাপে অন্য দলের সাংসদদের ভাঙিয়ে শক্তি বাড়াচ্ছে। ক’দিন আগে তেলুগু দেশমের সাংসদদেরও বিজেপিতে নিয়ে আসা হয়েছে। 

চন্দ্রশেখরকে নিয়ে বইটি লিখেছেন রাজ্যসভার ডেপুটি চেয়ারম্যান হরিবংশ। বইটির মুখবন্ধ লিখেছেন প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখোপাধ্যায়।