• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

সীমা জটে ভাই-কার্ফু, অ-মিজোরা ঘরবন্দি

North-East
প্রতীকী ছবি।

এক দিকে ত্রিপুরা, অন্য দিকে অসম৷ দু’রাজ্যের সঙ্গে জমি বিবাদের জেরে মিজোরামে ‘ভাই-কার্ফু’র ডাক দিয়েছে দুই মিজো সংগঠন৷ ইয়ং মিজো অ্যাসোসিয়েশন এবং মিজো জিরলাই পল রবিবার সকালে ঘোষণা করেছে, ‘ভাই’ বা অ-মিজোরা কেউ ঘর থেকে বেরোতে পারবে না৷ তাদের জন্য ‘কার্ফু’ জারি করা হল৷ আচমকা এমন নির্দেশে বিপাকে পড়েছেন মিজোরামে বসবাসকারী অ-মিজো জনতা৷ উদ্বেগ ছড়িয়েছে অসম, ত্রিপুরাতেও৷ কারণ দু’রাজ্যের প্রচুর মানুষ মিজোরামে রয়েছেন৷ 

মিজো সংগঠন দু’টির যুক্তি, মিজোরামের জমি বেদখল করে নিজেদের বলে দাবি করছে অসম৷ তাদের দাবি না-মানায় অর্থনৈতিক অবরোধ ডেকে মিজোরামের প্রবেশপথ বন্ধ করে দিয়েছে৷ এই অবস্থায় অ-মিজোদের নিরাপত্তার কথা ভেবেই ‘ভাই-কার্ফু’ ডাকা হয়েছে৷ অর্থনৈতিক অবরোধের দরুন আটকে পড়া লরিচালকদের খাবার বিতরণের ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় দিয়ে সংগঠন-কর্তারা বলেন, অ-মিজোদের নিরাপত্তা নিয়ে প্রশ্ন তোলা অবান্তর৷ 

কিন্তু কাছাড় জেলায় আটকে পড়া লরিচালকদের ভিন্ন বক্তব্য৷ তাঁরা জানিয়ে দিয়েছেন, অর্থনৈতিক অবরোধ উঠে গেলেও তাঁরা এসকর্ট ছাড়া মিজোরামে ঢুকবেন না৷ আগের অভিজ্ঞতা উল্লেখ করে জানান, মিজোরামের ছাত্র-যুব সংগঠনগুলি লরিচালকদের শারীরিক নিগ্রহ করে৷ দু’রাজ্যের জমি বিবাদে ক্ষতিগ্রস্ত সীমানার মানুষ৷ সরকারি পর্যায়ে পারস্পরিক দোষারোপ চললেও দু’দিকেই সীমানা লাগোয়া এলাকায় বাড়িঘর পুড়েছে, ভাঙচুর হয়েছে৷ অসম-মিজোরাম জমি বিবাদ ইস্যুতে দুই রাজ্যের মুখ্যসচিবের সঙ্গে সোমবার সকালে ভিডিয়ো বৈঠক করবেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র সচিব৷ দক্ষিণ অসমের ডিআইজি দিলীপকুমার দে বলেন, “দুই রাজ্য সরকার কথা বলছে৷ আমাদের আশা, সার্ভে অব ইন্ডিয়ার ম্যাপের ভিত্তিতে শীঘ্র এর সমাধান হবে৷” 

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন