পিপাসুদের জন্য আর গ্লাসভর্তি নয়, বরাদ্দ থাকবে অর্ধেক গ্লাস জল! জলের অপচয় বন্ধ করতে নয়া ফরমান জারি করল উত্তরপ্রদেশে সরকার। নয়া এই নির্দেশিকা জারি হয়েছে লখনউয়ে রাজ্য সরকারের সচিবালয়ে।

জল নিয়ে দেশের একটা বড় অংশে হাহাকার চলছে। জলের অপচয় রুখতে নানা রকম পদক্ষেপও ইতিমধ্যে করতে শুরু করেছে রাজ্যসরকারগুলো। উত্তরপ্রদেশে সচিবালয় থেকেই এ ব্যাপারে পদক্ষেপ করল যোগীর সরকার। বৃহস্পতিবার রাজ্যের মুখ্যসচিব প্রদীপ দুবে নির্দেশিকা জানিয়ে দিলেন, কোনও ভাবেই জলের অপচয় করা যাবে না। অর্ধেক গ্লাস জল বরাদ্দ থাকবে সচিবালয়ে আসা মানুষ এবং কর্মীদের জন্য।

ওই নির্দেশিকায় বলা হয়েছে, রাজ্যের বিধানসভার স্পিকার নির্দেশে প্রাথমিক ভাবে অর্ধেক গ্লাস জল রাখা থাকবে। প্রয়োজনে পরে আরও জল দেওয়া হবে।

আরও পড়ুন: তিনশোরও বেশি এনকাউন্টার করেছেন, ট্রিগার ছেড়ে এ বার রাজনীতিতে আসছেন ইনি

আরও পড়ুন: লোক ঠকানোর নালিশ, উধাও বঙ্গ প্রযোজক

কেন এমন নির্দেশিকা?

ওই নির্দেশকায় আরও বলা হয়েছে, প্রায়ই দেখা যায় এক গ্লাস জল রাখা থাকলেও সচিবালয়ে আসা লোকেরা বা কর্মীরা তা পুরো খান না। অর্ধেক খেয়েই ফেলে দেন। এতে জলের অপচয় হয়। তেষ্টা মেটাতে যদি অর্ধেক গ্লাস জল পর্যাপ্ত না হয়, তখন আরও জল দেওয়া হবে।

জলসঙ্কট নিয়ে নীতি আয়োগের রিপোর্টে এই মুহূর্তে গোটা দেশ সন্ত্রস্ত। দক্ষিণের রাজ্যগুলোতে ইতিমধ্যেই জলের হাহাকার শুরু হয়ে গিয়েছে। ধীরে ধীরে দেশের অন্য রাজ্যগুলোতেও তার প্রভাব পড়তে শুরু করছে। উত্তরপ্রদেশও সেই তালিকায় রয়েছে। তাই আর দেরি না করে সরকারি দফতর থেকেই এই পদক্ষেপের সিদ্ধান্ত নিল যোগীর সরকার।