স্বাধীনতার পরে জম্মু-কাশ্মীর নিয়ে দেশের প্রথম প্রধানমন্ত্রী ও উপপ্রধানমন্ত্রীর দৃষ্টিভঙ্গির প্রসঙ্গে বিজেপি নেতারা প্রায়ই মন্তব্যটা করেন। সরকারের ১০০ দিন পূর্তি উপলক্ষে আজ আমদাবাদে এসে একই কথা বললেন কেন্দ্রীয় আইন ও যোগাযোগ মন্ত্রী রবিশঙ্কর প্রসাদ। কাশ্মীরে ৩৭০ ধারা রদ প্রসঙ্গে তাঁর মন্তব্য, ‘‘আমি বলতে চাই, জম্মু-কাশ্মীর নিয়ে সর্দার পটেল ছিলেন ঠিক, জওহরলাল নেহরু ভুল। একটা ঐতিহাসিক ভুল হয়েছিল। আমাদের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী প্রভূত সাহস দেখিয়ে সেই ভুল সংশোধন করেছেন।’’

রবিশঙ্করের মতে, ৩৭০ রদের সিদ্ধান্ত সুদূরপ্রসারী। জম্মু-কাশ্মীর তথা ভারতের স্বার্থেই তা করা হয়েছে। বিষয়টির পরিকল্পনা ও তা কার্যকর করার জন্য স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহকেও অভিনন্দন জানান তিনি। প্রসাদের দাবি, ‘‘১৪টি থানা এলাকা বাদে জম্মু-কাশ্মীরের সমস্ত এলাকা থেকে কার্ফু তুলে নেওয়া হয়েছে। একটাও গুলি চালাতে হয়নি। ব্রিটেন, আমেরিকা, রাশিয়া ও ফ্রান্স ৩৭০ রদের সিদ্ধান্তের প্রশংসা করেছে। এমনকি চিনও খোলাখুলি আপত্তি তোলেনি।’’ কিন্তু এ নিয়ে বিরোধীদের (কংগ্রেস) অবস্থান বোঝা যাচ্ছে না বলে অভিযোগ করেন তিনি। পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান আগামী ১৩ সেপ্টেম্বর পাক অধিকৃত কাশ্মীরের মুজফ্‌ফরাবাদে প্রতিবাদী সভা করবেন। সেই প্রসঙ্গে রবিশঙ্কর বলেন, ‘‘উনি আগে পাক অধিকৃত কাশ্মীরের মানুষের গণতান্ত্রিক অধিকার আর চাকরি নিয়ে মুখ খুলুন।’’