• সংবাদ সংস্থা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

একসঙ্গে কাজ করার প্রস্তাব দিয়েছিলেন মোদী, পত্রপাঠ প্রত্যাখান করেছিলাম, বললেন শরদ পওয়ার

Modi-Pawar
প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী (বাঁ দিকে) ও শরদ পওয়ার। —ফাইল চিত্র

Advertisement

মহারাষ্ট্রে সরকার গঠন নিয়ে শিবসেনা-এনসিপি-কংগ্রেসের টানাপড়েনের মধ্যেই প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করেছিলেন শরদ পওয়ারনরেন্দ্র মোদী-পওয়ারের সেই বৈঠক ঘিরে রাজনৈতিক মহলে তুমুল জল্পনা ছড়িয়েছিল। প্রশ্ন উঠেছিল, তবে কি বিজেপির দিকে ঝুঁকছেন এনসিপি প্রধান। সেই সব জল্পনাই খোলসা করলেন শরদ পওয়ার। দাবি করলেন, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী তাঁকে এক সঙ্গে কাজ করার কথা বলেছিলেন। কিন্তু পত্রপাঠ সেই প্রস্তাব ফিরিয়ে দিয়েছিলেন মরাঠা স্ট্রং ম্যান পওয়ার। এমনকি, প্রত্যাখ্যান করেছিলেন তাঁর কন্যা সুপ্রিয়া সুলেকে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী করার প্রস্তাবও।

অজিত পওয়ারের শিবির বদলে দেবেন্দ্র ফডণবীস শিবিরে ভিড়ে যাওয়া, সুপ্রিম কোর্টের আস্থাভোটের নির্দেশের পর তাঁর ও ফডণবীসের ইস্তফা এবং সব শেষে মহারাষ্ট্রে সরকার গঠন শিবসেনা-এনসিপি-কংগ্রেস জোটের। মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে শপথ নিয়েছেন উদ্ধব ঠাকরে। প্রায় এক মাস ধরে পরতে পরতে রং বদলানো এই নাটকের ইতি হয়েছে। সব কিছু থিতিয়ে যাওয়ার পরে সোমবার একটি মরাঠি টিভি চ্যানেলে মোদীর সঙ্গে তাঁর সেই বৈঠক নিয়ে মুখ খুললেন শরদ পওয়ার।

২০ নভেম্বরের ওই বৈঠক প্রসঙ্গে পওয়ার বলেন, ‘‘প্রধানমন্ত্রী মোদী আমাকে এক সঙ্গে কাজ করার প্রস্তাব দিয়েছিলেন। আমি ওঁকে বলেছিলাম, আমাদের ব্যক্তিগত সম্পর্ক খুব ভাল এবং সেটা থাকবেও। কিন্তু আমার পক্ষে এক সঙ্গে কাজ করা সম্ভব নয়।’’

অজিত পওয়ার তখনও ‘বিদ্রোহী’ হয়ে ফডণবীস শিবিরে যোগ দেননি। শিবসেনা, এনসিপি, কংগ্রেস মিলে যখন মহারাষ্ট্রে সরকার গঠন প্রায় নিশ্চিত করে ফেলেছে— তেমনই এক সন্ধিক্ষণে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সঙ্গে বৈঠক করেছিলেন শরদ পওয়ার। সেই সময় জল্পনা ছড়িয়েছিল, বিজেপি শিবিরে ভিড়তে পারেন পওয়ার। পরিবর্তে তাঁকে পরবর্তী রাষ্ট্রপতি করার প্রস্তাব দিতে পারেন মোদী। কিন্তু সাক্ষাৎকারে পওয়ার জানিয়েছেন, তেমন কোনও প্রস্তাব মোদী দেননি।

আরও পড়ুন: মাওবাদী নয়, বিজাপুরে ১৭ জন নিরীহ গ্রামবাসীকে খুন করেছিল পুলিশ, জানাল তদন্ত রিপোর্ট

আরও পড়ুন: ‘অনুপ্রবেশকারী’ ও ‘নির্বলা’ মন্তব্যে ক্ষমা চাইতে হবে অধীরকে, সংসদে শোরগোল বিজেপির

তবে সুপ্রিয়া সুলেকে মন্ত্রী করার প্রস্তাব এসেছিল বলে জানিয়েছেন এনসিপি প্রধান। তিনি বলেন, ‘‘তবে সুপ্রিয়াকে কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভায় অন্তর্ভুক্ত করার প্রস্তাব দিয়েছিলেন মোদী।’’ সেই প্রস্তাবও সসম্মানে প্রত্যাখ্যান করেছিলেন বলে দাবি করেছেন পওয়ার। সুপ্রিয়া সুলে পুণের বারামতী কেন্দ্র থেকে এনসিপির প্রার্থী হয়ে গত লোকসভাতেই জিতে সাংসদ হয়েছেন। অন্য দিকে শরদকন্যা সুপ্রিয়া এ দিন একটি সর্বভারতীয় টিভি চ্যানেলে বলেন, ‘‘আমি বৈঠকে ছিলাম না। ওটা ছিল দুই বর্ষীয়ান নেতার বৈঠক। এটা প্রধানমন্ত্রীর উদারতা যে তিনি ওই প্রস্তাব দিয়েছিলেন। মতাদর্শগত পার্থক্য থাকলেও মহারাষ্ট্রে ব্যক্তিগত সম্পর্ককে খুব গুরুত্ব দেওয়া হয়।’’ এর পরেই সঞ্চালককে পাল্টা প্রশ্নে সুপ্রিয়া বলেন, ‘‘কিন্তু আপনি জানেন তো পওয়ারজি কি বলেছিলেন, সসম্মানে না বলেছিলেন।’’

সবাই যা পড়ছেন

Advertisement

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন
বাছাই খবর

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন