এখন যা করছেন, তাতে খুব সন্তুষ্ট। তবে সুযোগ পেলে তিনি ভারতে ফিরে আসতে রাজি। কোনও সরকার যদি তাঁকে কাজে লাগাতে চায়, তিনি গররাজি হবেন না। জানালেন রিজার্ভ ব্যাঙ্কের প্রাক্তন গভর্নর বিশিষ্ট অর্থনীতিবিদ রঘুরাম রাজন

লোকসভা ভোটের পর কংগ্রেসের নেতৃত্বে কেন্দ্রে কোনও মহাজোট সরকার এলে তিনি অর্থমন্ত্রী হতে পারেন বলে যে খবর রটেছে, তারই প্রেক্ষিতে এই মন্তব্য করেছেন রাজন। তাঁর কথায়, ‘‘এখন যা করছি, তা নিয়ে আমি খুব সন্তুষ্ট। কিন্তু সুযোগ পেলে, আমার অভিজ্ঞতাকে কেউ ব্যবহার করতে চাইলে আমি ভারতে ফিরে আসতে রাজি আছি। সেই দায়িত্ব নিতেও রাজি আছি।’’ কোনও কোনও মহলের দাবি, কেন্দ্রে কংগ্রেস সরকার ক্ষমতায় এলে অর্থমন্ত্রী হতে পারেন রাজন।

রাজন এখন শিকাগো বিশ্ববিদ্যালয়ের বুথ স্কুল অফ বিজনেসের অর্থনীতি বিভাগের ক্যাথরিন ডুসাক মিলার ডিসটিঙ্গুইজড প্রফেসর। অর্থনীতিবিদ হিসেবে তাঁর পরিচিতি বিশ্বজুড়ে। মেয়াদ ফুরনোর পর মোদী সরকার আর তাঁকে রিজার্ভ ব্যাঙ্কের গভর্নরের পদে রাখতে চায়নি।

আরও পড়ুন- কর্মসংস্থানের কেন্দ্রীয় পরিসংখ্যান সঠিক তথ্য দিচ্ছে না: রাজন​

আরও পড়ুন- বিনি পয়সায় কত দিন, প্রশ্ন তুললেন রাজন​

কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গাঁধী মঙ্গলবার ভূয়সী প্রশংসা করেন রাজনের। বলেন, ‘‘প্রথম সারির যে সব অর্থনীতিবিদের পরামর্শ তাঁর দল সব সময় নেয়, রাজন তাঁদের অন্যতম। এমনকি, ‘ন্যূনতম আয় যোজনা’ বা ‘ন্যায়’-এর খসড়া তৈরির জন্যও ওঁর (রাজন) পরামর্শ নিয়েছি আমরা।’’

তবে তাঁর ভারতে ফিরে আসার সম্ভাবনা নিয়ে যে জল্পনাকল্পনা চলছে, তা ‘একটু বেশি আগেভাগে ভাবা হচ্ছে’ বলে মনে করেন রাজন। তাঁর কথায়, ‘‘এত আগে এই সব নিয়ে আলোচনা করাটাই অর্থহীন। আমি সত্যিই মনে করি, এই নির্বাচনটা (লোকসভা ভোট) ভারতের পক্ষে খুব গুরুত্বপূর্ণ হতে চলেছে। আর এ দেশে আরও একটা অর্থনৈতিক সংস্কার খুব জরুরি হয়ে উঠেছে। আমি সেই ধারণাটাকেই আরও এগিয়ে নিয়ে যেতে চাই।’’

রাজন জানিয়েছেন, দেশের অর্থনৈতিক স্বাস্থ্যের হাল  ফেরানোর জন্য প্রয়োজন কৃষির উপর বাড়তি দৃষ্টি দেওয়া। জমি অধিগ্রহণের যাবতীয় সমস্যা দ্রুত মেটানো।