রাহুল গাঁধীর টুইটে ফের অস্বস্তিতে জম্মু-কাশ্মীরের রাজ্যপাল সত্যপাল মালিক। কাশ্মীর সফরে আসতে চেয়ে রাহুল একাধিক শর্ত দিয়েছেন, এই যুক্তিতে নিজেরই করা আমন্ত্রণের দায় পুিলশ-প্রশাসনের দিকে ঠেলেন সত্যপাল। কিন্তু আজ রাহুল পাল্টা টুইট করে রাজ্যপালকে জানান যে, তিনি শর্ত ছাড়াই কাশ্মীর যেতে প্রস্তুত। রাহুলের টুইটের পরে প্রায় দশ ঘণ্টা কেটে যাওয়া সত্ত্বেও মুখ খোলেননি রাজ্যপাল বা রাজভবন।

ঘটনার সূত্রপাত গত সপ্তাহে। কাশ্মীরে কার্ফু চলাকালীন পুলিশ ও বিক্ষোভকারীদের সংঘর্ষের খবর দেখে রাহুল মন্তব্য করেছিলেন, ওই রাজ্যে মানুষ মারা যাচ্ছেন। সত্যপাল মালিক রাহুলকে কাশ্মীরে এসে পরিস্থিতি  দেখার জন্য বিমান পাঠানোর প্রতিশ্রুতি দেন। কাল সকালে রাহুল টুইট করে জানান, তিনি ও বিরোধী নেতাদের প্রতিনিধিদল উপত্যকার পরিস্থিতি দেখতে যেতে প্রস্তুত। দলটি যাতে সকলের সঙ্গে দেখা করতে পারে, রাজ্যপালের কাছে সেই নিশ্চয়তা চান রাহুল। সেই শর্তগুলিকে ঢাল করেই রাহুল কাশ্মীরে আসতে পারেন কি না, তা খতিয়ে দেখার জন্য গত রাতে স্থানীয় পুলিশ-প্রশাসনকে নির্দেশ দেয় রাজভবন।

সেই নির্দেশের প্রেক্ষিতে আজ ফের টুইট করেন রাহুল। বলেন, ‘‘আপনার আমন্ত্রণ পেয়েই জম্মু-কাশ্মীর গিয়ে লোকেদের সঙ্গে দেখা করতে চাই। কোনও শর্ত রাখছি না। কবে আসব?’’

কংগ্রেস সূত্র বলছে, রাহুল ব্যক্তিগত ভাবে চাইছেন সেখানে গিয়ে পরিস্থিতি বুঝতে। ইতিমধ্যেই বেশ কিছু বিরোধী নেতার সঙ্গেও কথা বলেছেন তিনি। তবে রাহুল এ-ও বুঝতে পারছেন, এই মুহূর্তে স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে নিরাপত্তাজনিত চাপ রয়েছে উপত্যকায়। তাই পরিস্থিতি কিছুটা স্বাভাবিক হলে কাশ্মীরে হয়তো যেতে দেওয়া হবে বিরোধী নেতাদের। তবে কংগ্রেস শিবিরের ধারণা, হামলার আশঙ্কা থেকেও রাহুলের উপদ্রুত এলাকায় যাওয়া আটকাতে পারে কেন্দ্র।