• সংবাদ সংস্থা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

প্রাণের ঝুঁকি নিয়ে ১১ জনকে উদ্ধার, দিল্লির অগ্নিকাণ্ডে ‘হিরো’ রাজীব শুক্ল

Satyendar Jain
আহত দমকল কর্মীর সঙ্গে হাসপাতালে সত্যেন্দ্র জৈন। ছবি: টুইটার থেকে সংগৃহীত।

Advertisement

প্রয়োজনীয় সরঞ্জাম এসে পৌঁছয়নি তখনও পর্যন্ত। ছিল না সাহায্য করার মতো কেউ-ও। সেই অবস্থাতেই আগু পিছু না ভেবে ঝাঁপিয়ে পড়েছিলেন আগুনের লেলিহান শিখার মধ্যে। সেখান থেকে একে একে নিরাপদে বার করে এনেছিলেন ১১ জনকে। এ হেন দমকল কর্মীকে তাঁর সাহসিকতার জন্য কুর্নিশ জানালেন দিল্লির মন্ত্রী সত্যেন্দ্র জৈন। 

রবিবার সাত সকালে  অগ্নিকাণ্ডের জেরে এক দিকে রাজধানীতে  যখন মৃত্যু মিছিল অব্যাহত, ঠিক সেইসময়ই  দমকল কর্মী রাজীব শুক্লকে নিয়ে একটি টুইট করেন দিল্লির স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সত্যেন্দ্র জৈন। জানান, কোনওকিছুর তোয়াক্কা না করে একাই ১১ জনকে আগুনের মধ্যে থেকে বার করে আনেন রাজীব শুক্ল। তিনি না থাকলে মৃত্যুসংখ্যা আরও বাড়তে পারত।

উদ্ধারকার্য চালাতে গিয়ে চোট পান রাজীব শুক্ল। দিল্লির লোকনায়ক হাসপাতালে ভর্তি করানো হয় তাঁকে। সেখানে তাঁকে দেখতে যান সত্যেন্দ্র জৈন। তার পরই নিজের টুইটার হ্যান্ডলে রাজীব শুক্লর সঙ্গে একটি ছবি পোস্ট করেন সত্যেন্দ্র। তাতে তিনি লেখেন, ‘দমকল কর্মী রাজেশ শুক্লই আজকের আসল নায়ক। অগ্নিকাণ্ড যেখানে ঘটেছে, আজ সর্বপ্রথম তিনিই পৌঁছন সেখানে। ১১ জনের প্রাণ রক্ষা করেন। নিজে হাড়ে চোট পাওয়া সত্ত্বেও উদ্ধার শেষ না হওয়া পর্যন্ত কাজ চালিয়ে গিয়েছেন। এই সাহসিকতার জন্য ওঁকে কুর্নিশ।’

সত্যেন্দ্র জৈন-র টুইট।

আরও পড়ুন: কাকভোরে দিল্লিতে কারখানায় ভয়াবহ আগুন, দমবন্ধ হয়ে অন্তত ৪৩ শ্রমিকের মৃত্যু​

আরও পড়ুন: বড় নেতার ঘনিষ্ঠ খাদান মালি কের সঙ্গে বিরোধ! উপরতলার ‘শাসনে’ চাকরি ছাড়লেন ওসি​

এ দিন কাকভোরে দিল্লির রানি ঝাঁসি রোডের আনাজ মণ্ডিতে একটি ব্যাগ তৈরির কারখানায় ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ড ঘটে। তাতে ৪৩ জন প্রাণ হারিয়েছেন। শর্টসার্কিট থেকেই আগুন লেগেছে বলে প্রাথমিক তদন্তে জানা গিয়েছে। তবে বিষয়টি নিয়ে ম্যাজিস্ট্রেট পর্যায়ের তদন্ত শুরু হয়েছে। কারখানার দুই মালিকের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছে পুলিশ।

অন্য দিকে, নিহতদের পরিবার পিছু ইতিমধ্যেই ১০ লক্ষ টাকার ক্ষতিপূরণ ঘোষণা করেছেন দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরীবাল। ১ লক্ষ টাকা করে পাবেন আহতরা।

সবাই যা পড়ছেন

Advertisement

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন