• সংবাদ সংস্থা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

তফসিলি আইনে সংশোধনী বহাল

Supreme court
—ফাইল চিত্র।

সুপ্রিম কোর্টের রায়কে খারিজ করার জন্য তফসিলি জাতি-জনজাতি আইন সংশোধন করেছিল কেন্দ্র। তফসিলি জাতি-জনজাতি সংশোধনী আইন ২০১৮ যে সংবিধানসম্মত, তা আজ জানিয়ে দিল শীর্ষ আদালত। তফসিলি জাতি বা জনজাতিভুক্ত কোনও ব্যক্তির উপরে হিংসার ঘটনায় অভিযুক্তকে তৎক্ষণাৎ গ্রেফতার করা যাবে।

তফসিলি জাতি-জনজাতির বিরুদ্ধে অত্যাচার, শোষণ, বঞ্চনা রুখতে ২০১৮ সালে সংবিধান সংশোধনী হয়েছিল। সেই সংশোধনী অনুযায়ী, ওই অভিযোগগুলির ক্ষেত্রে বিনা তদন্তে এফআইআর নিতে হবে। অভিযুক্তের আগাম জামিনের সংস্থানও ছিল না। ওই সংশোধনীর বিরুদ্ধে সুপ্রিম কোর্টে কয়েকটি আবেদন জমা পড়েছিল। অভিযোগ, সংসদ কারণ ছাড়াই এই আইন সংশোধন করেছে। আজ সুপ্রিম কোর্টে বিচারপতি অরুণ মিশ্র, বিচারপতি বিনীত সরণ ও বিচারপতি রবীন্দ্র ভট্টের বেঞ্চ সংশোধনীটি বহাল রেখেছে। বেঞ্চ জানিয়েছে, এই আইনে মামলা দায়ের করতে তদন্তের কোনও প্রয়োজন নেই। অভিযুক্তও আগাম জামিন পাবেন না। তবে আদালত যদি মনে করলে নির্দিষ্ট কিছু ক্ষেত্রে আগাম জামিন দিতে পারবে। 

বিচারপতি অরুণ মিশ্রের এই রায়ের সঙ্গে এক মত হননি বিচারপতি রবীন্দ্র ভট্ট। তাঁর পর্যবেক্ষণ, ব্যতিক্রমী ক্ষেত্রে আগাম জামিন দেওয়া উচিত। না হলে ‘বিচারের গর্ভপাত’ হবে। তিনি বলেন, ‘‘প্রত্যেক নাগরিকের উচিত সহ-নাগরিককে নিজের সমকক্ষ মনে করা। পরস্পরের প্রতি ভ্রাতৃত্বের মনোভাব দেখানো উচিত। এই আইনে যদি মামলা না-হয়, তা হলে কোর্ট এফআইআর বাতিল করে দিতে পারে। তবে যে কোনও ব্যক্তিকে জামিন দিলে সংসদের উদ্দেশ্য ব্যর্থ হবে।’’ তবে বিচারপতিদের সংখ্যাগরিষ্ঠতার ভিত্তিতে বিনা তদন্তে এফআইআর ও জামিন নামঞ্জুরের রায়ই বহাল রইল।

আরও পড়ুন: ‘মোদীজির চেষ্টা ব্যর্থ হবে, সংরক্ষণ থাকবে’, বিজেপিকে তোপ রাহুলের

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন