ঢাকের দায়ের মনসা বিকিয়ে যাওয়া বোধ হয় একেই বলে। বুধবার রাস্তায় নেমে তা হাড়ে হাড়ে টের পেলেন ভুবনেশ্বরের অটো রিকশ চালক হরিবন্ধু কাহাঁর। ট্রাফিক আইন ভাঙার অপরাধে হরিবন্ধুকে জরিমানা করা হয়েছে। আর তার অঙ্ক দেখে চোখ কপালে উঠেছে হরিবন্ধুর। পঁচিশ হাজার টাকার সেকেন্ড হ্যান্ড অটোর জন্য তাঁকে ৪৭ হাজার টাকার জরিমানা করেছে ট্রাফিক পুলিশ।

ভুবনেশ্বরের ট্রাফিক পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, বিভিন্ন অপরাধের জন্যই জরিমানার অঙ্ক এত বিপুল পরিমাণ হয়েছে। তাঁকে সাধারণ অপরাধে ৫০০ টাকা, মত্ত অবস্থায় গাড়ি চালানো এবং মত্ত অবস্থায় কোনও ব্যক্তিকে গাড়িতে তোলার জন্য মোট ১৫ হাজার টাকা, লাইসেন্স না থাকার জন্য ৫ হাজার টাকা, দূষণের জন্য ১০ হাজার টাকা, গাড়ি নথিভুক্ত না থাকার জন্য ১০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। সব মিলিয়ে ৪৭ হাজার ৫০০ টাকা জরিমানা দিতে হবে ওই অটোচালককে। তবে এই টাকা দিতে পারবেন না বলেই জানিয়েছেন হরিবন্ধু।

অটোর দাম ছাড়াল জরিমানার অঙ্ক। ছবি: সংগৃহীত

এই প্রথম নয়, এর আগে গুরুগ্রামের এক অটো চালককে সাড়ে ৩২ হাজার টাকা ও এক স্কুটি চালককে ২৩ হাজার টাকা জরিমানা করেছিল ট্রাফিক পুলিশ। নতুন ট্রাফিক আইন চালু হওয়ার পর, প্রথম দিনেই ২ লক্ষ ১৩ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করে ফেলেছে ভুবনেশ্বর ট্রাফিক পুলিশ।