লোকসভা কক্ষে প্রথম সারি ছেড়ে নিজেই দ্বিতীয় সারিতে বসতে চেয়েছিলেন রাহুল গাঁধী। রাহুলকে অমেঠীতে হারিয়ে দেওয়া স্মৃতি ইরানির জন্য প্রথম সারিতে আসন ধার্য হয়েছে এ বার।

লোকসভাতে কোন সাংসদ কোথায় বসবেন, তার তালিকা মোটের উপর চূড়ান্ত করে আজ প্রকাশ করল সচিবালয়। তাতে প্রত্যাশা মতোই মাফিক নরেন্দ্র মোদী, রাজনাথ সিংহ, অমিত শাহ, নিতিন গডকড়ী, সদানন্দ গৌড়ারা প্রথম সারিতে বসছেন। আসনের ক্রম অনুসারে প্রধানমন্ত্রীর আরও ১৮৭ জনের পরে স্মৃতি ইরানির নাম থাকলেও বিন্যাস অনুযায়ী প্রথম সারিতেই ঠাঁই পেয়েছেন স্মৃতি। আজ লোকসভা সচিবালয় আসন নির্ধারণ করার পর সেই আসনেই বসেন তিনি।

বিরোধী শিবিরের প্রথম সারিতে রয়েছেন কংগ্রেসের সনিয়া গাঁধী আর দলের নেতা হিসেবে অধীররঞ্জন চৌধুরী। অন্য কোনও কংগ্রেস সাংসদকে সেখানে জায়গা দেওয়া হয়নি। ‘নেতাজি’ মুলায়ম সিংহ যাদব, ডিএমকের টি আর বালু প্রথম সারিতে বসবেন সনিয়ার পাশে। আর রাহুল গাঁধী বসবেন ঠিক পিছনে দ্বিতীয় সারির কোণায়। যদিও সংসদ শুরু হওয়ার পর মায়ের পাশে প্রথম সারিতেই বসছিলেন রাহুল। তবে কংগ্রেসের পক্ষ থেকে আগেই জানানো হয়েছিল, রাহুল প্রথম সারি চাননি। দ্বিতীয় সারির জন্যই তাঁর নাম পাঠানো হয়েছিল সচিবালয়ে।