দাবি মতো টাকা না পাওয়ায় বাবাকে পিটিয়ে খুন করল ছেলে। দাদাকে এই কাজে সাহায্য করল তার দুই বোন। গত সোমবার ঘটনাটি ঘটেছে তেলঙ্গানার রাচাকোন্ডায়।

গত বছর জুন মাসে সরকারি চাকরি থেকে অবসর নিয়েছিলেন কৃষ্ণ। জলসম্পদ দফতর থেকে অবসরকালীন প্রাপ্য হিসেবে ছ’লাখ টাকা পেয়েছিলেন তিনি। একই সঙ্গে তিনি একটি জমিও বিক্রি করেছিলেন। সেই বাবদ তাঁর কাছে ছিল ১০ লাখ। এই পুরো টাকাটাই তিন ভাইবোনের মধ্যে ভাগ করে দেওয়ার দাবি তুলেছিলেন তাঁর বাইশ বছরের ছেলে।

ছেলের সেই দাবি অনেকটাই মেনে নিয়েছিলেন বাবা। মাত্র দু’লাখ নিজের জন্য রেখে বাকিটা তিন সন্তানের মধ্যে ভাগ করে দিয়েছিলেন।

তাতেও খুশি হয়নি ছেলে। কয়েক মাস পর থেকেই বাকি টাকা দেওয়ার জন্য বাবার উপর ক্রমাগত চাপ সৃষ্টি করতে থাকেন তিনি।

আরও পড়ুন: পাঁশকুড়ার কাছে লাইনচ্যুত পুরীগামী ধৌলি এক্সপ্রেস

গত সোমবার পরিস্থিতি চরমে ওঠে। টাকা দিতে রাজি না হওয়ায় বাবার উপর চড়াও হন ছেলে। রড দিয়ে মারধরও করা হয়। ছেলের মারে অচৈতন্য হয়ে পড়েন বৃদ্ধ। দাদার সঙ্গে সহকারী হিসাবে ছিলেন তাঁর দুই বোনও।

আরও পড়ুন: এই গ্রামের প্রতিটি পুরুষ দু’বার বিয়ে করেন! কারণ জানলে অবাক হবেন

পরে অচৈতন্য অবস্থায় হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয় কৃষ্ণকে। সেখানে চিকিৎসরা তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করেন।

পুলিশ অভিযুক্ত তিন জনকে গ্রেফতার করেছে। তাঁদের বিরুদ্ধে খুনের মামলা দায়ের করা হয়েছে।

(দেশজোড়া ঘটনার বাছাই করা সেরা বাংলা খবর পেতে পড়ুন আমাদের দেশ বিভাগ।)