জঙ্গলে জঙ্গিদমন অভিযানের সময় আচমকা রাঁচির এসএসপি-র গাড়ি ঘিরে ফেলে এলোপাথারি গুলি চালাতে শুরু করে মাওবাদীরা। হাতে গুলি লাগে এসএসপি প্রভাত কুমারের। প্রাণ হারান তাঁর গাড়ির চালক। গুরুতর জখম হন এসএসপি-র নিরাপত্তারক্ষী। পাল্টা গুলিতে মৃত্যু হয় এক মাওবাদীর।

আজ সকালে রাঁচি থেকে ৪০ কিলোমিটার দূরে খুঁটি সীমানার জোজাহাতু এলাকার জঙ্গলে ঘটনাটি ঘটে। পুলিশ জানিয়েছে, খুঁটির ওই জঙ্গল মাওবাদী ‘করিডর’ হিসেবে চিহ্নিত। ঝাড়খণ্ড ছাড়াও ওড়িশা, ছত্তীসগঢ়ের জঙ্গিরা ওই জঙ্গল দিয়ে যাতায়াত করে। মাঝেমধ্যেই ওই সব এলাকা চলে জঙ্গিদমন অভিযান।

এ দিন ভোর থেকে তেমনই পুলিশ অভিযান সেখানে শুরু করা হয়। পুলিশের সঙ্গে তাতে সামিল ছিল সিআরপি ১৩৩ ব্যাটেলিয়ন। অভিযানের নেতৃত্ব দিচ্ছিলেন এসএসপি প্রভাত কুমার। জঙ্গলের রাস্তায় আচমকা এসএসপি-র জিপ ঘিরে ধরে ১৫-২০ জন জঙ্গি। জিপের দিকে এলোপাথারি গুলি চালাতে থাকে তারা। পুলিশ পাল্টা জবাব দেয়। জঙ্গিদের গুলি লাগে প্রভাত কুমারের কাঁধে। বুকে গুলি লেগে ঘটনাস্থলেই লুটিয়ে পড়েন তাঁর গাড়ির চালক রুমুল ও নিরাপত্তারক্ষী ফয়সল। তিন জনকেই দ্রুত খুঁটি সদর হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে রুমুলকে মৃত বলে ঘোষণা করা হয়। প্রভাত কুমারকে রাঁচির একটি নার্সিংহোমে চিকিৎসার জন্য নিয়ে আসা হয়েছে। চিকিৎসা চলছে আহত কনস্টেবলেরও। সন্ধেয় ঝাড়খণ্ড পুলিশের এডিজি সত্যনারায়ণ প্রধান জানিয়েছেন, প্রভাত কুমারের অবস্থা স্থিতিশীল।

আহত এসএসপিকে দেখতে রাতে নার্সিংহোমে যান মুখ্যমন্ত্রী রঘুবর দাস।