দীপাবলির বোনাস গাড়ি! তাও আবার এক-দু’জনকে নয়, মোট ৬০০ কর্মীকে!নেপথ্যে গুজরাতের সেই ‘দিলদার’ হিরে ব্যবসায়ী, সাবজি ঢোলাকিয়া। ‘হরি কৃষ্ণ এক্সপোর্টার্স’-এর মালিক। সংস্থার কর্মীদের কাছে অবশ্য তিনি শুধুই সাবজি কাকা।

খুব শীঘ্র কর্মীদের হাতে এই উপহার তুলে দেওয়া হবে। বৃহস্পতিবারই তার শুভ সূচনা হয়েছে। সংস্থার তরফে নয়াদিল্লিতে ‘স্কিল ইন্ডিয়া ইনসেনটিভ সেরেমনি’-র আয়োজন হয়েছিল। ভিডিয়ো কনফারেন্সের মাধ্যমে তাতে অংশ নেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। সাবজি কাকার সংস্থায় কর্মরত দুই ভিন্নভাবে সক্ষম মহিলার হাতে গাড়ির চাবি তুলে দেন তিনি।

অনুষ্ঠানে হাজির ছিলেন সংস্থার আরও বেশ কিছু কর্মী। তাঁদের মধ্যে কেউ পেয়েছেন ফ্ল্যাটের চাবি, তো কারও হাতে উঠেছে মোটা অঙ্কের ফিক্সড ডিপোজিট। 

আরও পড়ুন: দু’লাখের গয়না কিনে ভুয়ো নোট গছিয়ে চম্পট দিল দম্পতি​

আরও পড়ুন: কর্মক্ষেত্রে মহিলাদের নিরাপত্তায় বিশেষ কমিটি গড়ল কেন্দ্র​

সাবজি কাকার ‘হরি কৃষ্ণ এক্সপোর্টার্স’ সংস্থার মোট কর্মী সংখ্যা প্রায় ৫৫০০। গত কয়েক বছরে তাঁদের মধ্যে প্রায় ৪০০০ জন দামি উপহার পেয়েছেন। এ বছর ১৬০০ জনকে বেছে নেওয়া হয়েছে।মারুতি সুজুকি অলটো এবং মারুতি সুজুকি সেলেরিওর মধ্যে গাড়ি বেছে নিতে বলা হয়েছে তাঁদের।

সাবজি কাকা জানান, ‘‘এ বছর ১৬০০ জনকে বেছে নিয়েছি আমরা। যাঁদের মধ্যে অধিকাংশই হিরে পলিশ করেন। সংস্থার উন্নয়নে তাঁদের বিরাট অবদান। তাই বিশেষ বোনাস দিতে চেয়েছিলাম। যাঁরা গাড়ি নিতে ইচ্ছুক, গাড়ি পাবেন। বাকিদের ফিক্সড ডিপোজিট এবং ফ্ল্যাট দেওয়া হবে। ভবিষ্যতের কথা ভেবেই এমন উপহার। যাতে কাজে আরও উৎসাহ পান তাঁরা।’’

কর্মীদের দামি উপহার দিয়ে এর আগেও একাধিকবার খবরের শিরোনামে উঠে এসেছেন সাবজি কাকা। কর্মক্ষেত্রে পঁচিশ বছর পূর্ণ করায়, চলতি বছরের শুরুতে সংস্থার তিন কর্মীকে বহুমূল্য মার্সিডিজ বেঞ্জ গাড়ি উপহার দেন তিনি। প্রায় এক কোটি টাকা করে দাম পড়ে গাড়িগুলির।  নতুন বছর উপলক্ষে গত বছর প্রায় ১২০০ কর্মীকে ডাটসন রেডি-গো গাড়ি উপহার দেন। তবে তাঁর এমন ‘দিলদার’ ভাবমূর্তি নিয়ে প্রথম শোরগোল পড়ে যায় ২০১৬ সালে। সেবার দীপাবলিতে কর্মীদের মোট ৫১ কোটি টাকা বোনাস দিয়েছিলেন তিনি।