• সংবাদ সংস্থা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

অপহরণে ধৃত প্রাক্তন বিজেপি নেতা-সহ তিন

Arrest
প্রতীকী ছবি

এক জ্যোতিষীকে অপহরণের অভিযোগে উত্তরপ্রদেশে বিজেপির এক প্রাক্তন সদস্য এবং তার দুই সঙ্গীকে গ্রেফতার করল পুলিশ। মঙ্গলবার কানপুর দেহাত এলাকা থেকে অভিযুক্তদের গ্রেফতার করার পরে অপহৃতকে উদ্ধার করা হয়।

পুলিশ জানিয়েছে, ধৃত সত্যম চৌহান বিজেপির প্রাক্তন জেলা সচিব (কানপুর দেহাত)। সত্যম ও তার এক সঙ্গী পঙ্কজ আকবরপুরের বাসিন্দা। অন্য সঙ্গী রোহিতের বাড়ি দিল্লিতে।  

পুলিশ সূত্রের খবর, মধ্যপ্রদেশের চিরাখদানের রামনগর এলাকার বাসিন্দা সুশীল তিওয়ারিকে সম্প্রতি ফোন করে ফাঁসায় সত্যম। পেশায় জ্যোতিষী সুশীলকে সত্যম বলে, একটি জাদু বাক্সের সন্ধান পেয়েছে সে। সেই বাক্স দেখতে আসার জন্য বারবার চাপ দিতে থাকে সত্যমেরা। শেষমেশ গাড়ি নিয়ে কানপুর দেহাতের দিকে রওনা হন সুশীল। সেখানে পৌঁছতেই সুশীল ও তাঁর গাড়ির চালককে অপহরণ করা হয়। ১ কোটি টাকা মুক্তিপণ চেয়ে ফোন যায় সুশীলের স্ত্রীর কাছে। বলা হয়, টাকা দিতে না পারলে বা পুলিশে খবর দিলে সুশীলকে মেরে ফেলা হবে। 

সুশীলের স্ত্রী রানি অবশ্য দেরি করেননি। তিনি মধ্যপ্রদেশ পুলিশের কাছে অপহরণের অভিযোগ করেন। অভিযোগ পেয়ে তদন্তে নামে কানপুর দেহাতের পুলিশ। সুশীলের ফোনের লোকশন খুঁজে তারা সত্যমের ডেরায় পৌঁছয়। উদ্ধার করা হয় সুশীল ও তাঁর গাড়ির চালককে। গ্রেফতার হয় সত্যমেরা। অপহরণের পর সুশীলের এটিএম কার্ড ব্যবহার করে ২.৩৫ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নেওয়ারও অভিযোগ উঠেছে সত্যমদের বিরুদ্ধে। সত্যমের বিষয়ে কানপুর দেহাতের বিজেপি জেলা সভাপতি অবিনাশ চৌহানের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, দল বিরোধী কাজকর্ম এবং অভব্য আচরণের জন্য সত্যমকে আগেই বহিষ্কার করা হয়েছে। বিজেপির সঙ্গে তার কোনও যোগ নেই।       

আরও পড়ুন: আগের সরকারকে বিঁধলেন জয়শঙ্কর

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন