টিপু সুলতান জন্মজয়ন্তী অনুষ্ঠানের আমন্ত্রণপত্র থেকে তাঁর নাম বাদ দেওয়া হোক। এমন টুইট করে বিতর্কের মুখে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী অনন্তকুমার হেগড়ে।

আরও পড়ুন: ৮০ পাওয়া ছাত্রীকে ৭ দিল বিহার বোর্ড, নম্বর ফেরাল হাইকোর্ট

কর্নাটকের উত্তর কন্নড়ের বিজেপি সাংসদ তথা কেন্দ্রীয় মন্ত্রী হেগড়ে রাজ্যের মুখ্যসচিবকে এ বিষয়ে চিঠিও পাঠিয়েছেন। তিনি বলেন, “এক জন বর্বর, হত্যাকারী, কট্টরপন্থী, ধর্ষককে গৌরবান্বিত করার আয়োজন চলছে। এমন লজ্জাজনক অনুষ্ঠানে যেন আমাকে ডাকা না হয়, সে কথা রাজ্য সরকারকে জানিয়েছি।” আগামী ১০ নভেম্বর টিপু সুলতান জয়ন্তী পালন করার আয়োজন করেছে কর্নাটক সরকার। সমস্ত রাজ্য ও কেন্দ্রীয় মন্ত্রীদের আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে সেই অনুষ্ঠানে। অনন্তকুমার হেগড়েকেও আমন্ত্রণ জানানো হয় সরকারের পক্ষ থেকে। কিন্তু তিনি সেই অনুষ্ঠানে যেতে সরাসরি অস্বীকার করে বিতর্ক উস্কে দিলেন। তাঁর এই মন্তব্যকে ঘিরে রাজনৈতিক মহলে শোরগোল পড়ে গিয়েছে। তীব্র আক্রমণ করেছে কংগ্রেস।

আরও পড়ুন: কেক কেটে জন্মদিন পালন সাদা বাঘের

 

হেগড়ের এই মন্তব্যের তীব্র নিন্দা করেছেন মুখ্যমন্ত্রী সিদ্দারামাইয়াও। তিনি বলেন, “এক জন মন্ত্রী হয়ে এমন মন্তব্য করা উচিত হয়নি হেগড়ের। সমস্ত কেন্দ্রীয় ও রাজ্য মন্ত্রীকে আমন্ত্রণপত্র পাঠানো হয়েছে। সেই আমন্ত্রণ গ্রহণ বা বর্জন করা সম্পূর্ণ তাঁদের ব্যাপার।” সিদ্দারামাইয়া আরও বলেন, “যে মানুষটি ব্রিটিশদের বিরুদ্ধে চারটি যুদ্ধে অংশ নিয়েছেন তাঁকে নিয়ে খামোখা রাজনীতি করা হচ্ছে।” ২০১৬-তেও টিপু সুলতান জন্মজয়ন্তী নিয়ে সরব হয়েছিলেন হেগড়ে।