• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

এনপিআর: পাসোয়ানের দাবি খারিজ প্রকাশের

prakash-ram
প্রকাশ জাভড়েকর ও রামবিলাস পাসোয়ান।

Advertisement

জাতীয় জনসংখ্যা পঞ্জি (এনপিআর) নিয়ে এ বার মতপার্থক্য তৈরি হল কেন্দ্রীয় মন্ত্রীদের মধ্যে।

এনপিআরে বাবা-মায়ের জন্মস্থান ও জন্মতারিখের মতো বিতর্কিত প্রশ্ন বাতিল হতে পারে বলে দাবি করছেন কেন্দ্রীয় খাদ্যমন্ত্রী রামবিলাস পাসোয়ান। যদিও কেন্দ্রীয় তথ্যসম্প্রচার মন্ত্রী প্রকাশ জাভড়েকর সেই সম্ভাবনা খারিজ করে দিয়ে বলেন, এনপিআরে উত্তর দেওয়া ঐচ্ছিক। কেউ চাইলে উত্তর না-ও দিতে পারেন।

এনপিআর আদতে এনআরসি (জাতীয় নাগরিক পঞ্জি)-র প্রথম ধাপ বলে শুরু থেকেই সরব বিরোধীরা। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়দের মতে, এনপিআরের মাধ্যমে বাবা-মায়ের জন্মস্থান জেনে আখেরে এনআরসি-এর রাস্তা খোলা রাখতে চাইছে মোদী সরকার। এ বার বিরোধীদের সুরে রামবিলাসও মেনে নিলেন, বাবা-মায়ের জন্মস্থান ও জন্মতারিখ সংক্রান্ত প্রশ্ন বেশ বিতর্কিত। তাঁর কথায়, ‘‘আমি তো আমার জন্মতারিখই জানি না। বাবামায়ের জন্মতারিখও জানি না, নথি দেব কী করে? বিষয়টি নিয়ে মানুষের মধ্যে যে সংশয়
রয়েছে তা আগেও স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকে জানানো হয়েছে।’’ তাঁর আশা, ওই প্রশ্নটি এনপিআর থেকে সরিয়ে দেওয়ার প্রশ্নে সরকার চিন্তাভাবনা করবে। যদিও ওই প্রশ্ন বাতিলের সম্ভাবনা অঙ্কুরেই খারিজ করেছেন জাভড়েকর। আজ কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভার বৈঠকের পরে সাংবাদিক বৈঠকে তিনি বলেন, ‘‘এনপিআরে বেশ কিছু  প্রশ্ন ঐচ্ছিক। কেউ উত্তর দিতে না চাইলে দেবেন না।’’

রামবিলাসের ছেলে চিরাগও নয়া নাগরিকত্ব আইন (সিএএ) এবং এনআরসি প্রসঙ্গে বলেছিলেন যে, ‘সরকারের উচিত ছিল শরিক দলগুলির সঙ্গে আলোচনা করা। পুরনো শরিক শিরোমণি অকালি দলও জানিয়েছে, মোদী সরকার সিএএ এনে বিভাজনের রাজনীতি করছে। তাই দিল্লি ভোটে বিজেপির সঙ্গে জোট করছে না তারা।

সিএএ-এনআরসি বিতর্কে অস্বস্তিতে শরিক জেডিইউয়ের নীতীশ কুমারও। বিতর্ক সত্ত্বেও কেন তিনি বিজেপি-র সঙ্গে রয়েছেন তা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন দলের জাতীয় সাধারণ সম্পাদক পবন বর্মা। চলতি বছরেই বিহারে ভোট। তাই মুসলিম ভোটের কথা মাথায় রেখে স্বস্তিতে নেই নীতীশ। তিনি সিএএ-কে নীতিগত ভাবে সমর্থন করলেও এনআরসি প্রশ্নে তাঁর আপত্তি রয়েছে বলে প্রকাশ্যে দাবি করেছেন।

সবাই যা পড়ছেন

Advertisement

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন