• সংবাদ সংস্থা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

রাখির দিন বাপের বাড়ি যেতে দেননি স্বামী, আত্মঘাতী স্ত্রী!

Suicide
আত্মঘাতী উত্তরপ্রদেশের ৩২ বছরের সেই মহিলা। ছবি প্রতীকী।

Advertisement

রাখি বন্ধন উৎসবে বাপের বাড়ি যেতে চেয়েছিলেন তিনি। কিন্তু বাপের বাড়ি যাওয়ার অনুমতি দেননি স্বামী। সে কারণে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মঘাতী হলেন ৩২ বছরের এক বধূ। বৃহস্পতিবার ঘটনাটি ঘটেছে উত্তরপ্রদেশের হরদই জেলার কোতওয়ালিতে।

আত্মঘাতী হওয়া ওই বধূর নাম অনামিকা। তাঁর স্বামী অংশুল সিংহের ওই এলাকায় একটি ইলেক্ট্রনিক্সের দোকান আছে। ওই দিন অনামিকাকে বাপের বাড়ি যেতে বারণ করে দোকানে চলে যান অংশুল। বিকাল নাগাদ তাঁদের আট বছরের ছেলে আহাম দেখতে পায় সিলিং ফ্যান থেকে গলায় ফাঁস দিয়ে ঝুলছে মা।

দেখেই কান্না জুড়ে দেয় আহাম। কান্না শুনে প্রতিবেশীরা আসেন। তার পর ঘটনার কথা জানাজানি হয়। খবর দেওয়া হয় পুলিশকেও। পুলিশ দেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠিয়েছে। প্রতিবেশীদের বয়ান অনুসারে, বাপের বাড়ি যেতে না দেওয়ার জন্যই আত্মঘাতী হয়েছে অনামিকা।

ঘটনার পর আসেন অনামিকার আত্মীয়েরা। কিন্তু অনামিকার স্বামীর বিরুদ্ধে কোনও অভিযোগ দায়ের করা হয়নি। জানা গিয়েছে, আহাম ছাড়াও ওই বধূর আর একটি ছেলে ও ছয় মাসের একটি মেয়ে আছে। 

আরও পড়ুন: মাদকের পুরিয়ায় রসনা বিক্রি! পুলিশের টুইটে হাসির রোল

আরও পড়ুন: ‘৭০ বছরে যা হয়নি, ৭০ দিনে তা করেছি’, কাশ্মীর নিয়ে দাবি মোদীর

সবাই যা পড়ছেন

Advertisement

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন