• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

দেখাচ্ছে না অনলাইন, প্রাইভেসি সেটিংয়ে গন্ডগোল, দেশ জুড়ে সমস্যা হোয়াটসঅ্যাপে

WA
প্রতীকী ছবি।

প্রতি দিনের মতো শুক্রবার রাতে বন্ধুর সঙ্গে কথা বলার জন্য হোয়াটসঅ্যাপটা খুলেছিলেন সিদ্ধার্থ দত্ত। কিন্তু টেক্সট করতে গিয়েই তার নজরে আসে, কিছু একটা গন্ডগোল হচ্ছে সোশ্যাল মিডিয়ার এই জনপ্রিয় প্ল্যাটফর্মে। একটু ধন্দে পড়ে যান সিদ্ধার্থ। তা হলে কি তাঁর মোবাইলে কোনও সমস্যা হল? এক বার ফোনটা ভাল করে পরীক্ষাও করলেন তিনি। নাহ! ঠিকই তো আছে। তা হলে?

এ বার যে বন্ধুকে হোয়াটসঅ্যাপ করতে যাচ্ছিলেন, তাঁকেই ফোন করলেন তিনি। বললেন, হোয়াটসঅ্যাপটা এক বার চেক করার জন্য। কী হয়েছে জিজ্ঞাসা করায় সিদ্ধার্থ বললেন হোয়াটসঅ্যাপে প্রাইভেসি সেটিংস চেঞ্জ হয়ে গিয়েছে। ‘লাস্ট সিন’ লেখাটাও দেখাচ্ছে না। এমনকি, কেউ অনলাইনে আছে কি না সেটাও বোঝা যাচ্ছে না! ফোন ছেড়ে কিছু ক্ষণ বাদে সেই বন্ধুও সিদ্ধার্থকে জানালেন, তাঁরও একই সমস্যা। সিদ্ধার্থ এ বার নিশ্চিত হলেন, যে ফোনের সমস্যা নয়। সমস্যাটা হয়েছে হোয়াটসঅ্যাপের। 

সিদ্ধার্থর মতো আরও অনেকেই শুক্রবার রাতে এমন অভিজ্ঞতার মুখোমুখি হয়েছেন। হোয়াটসঅ্যাপের এই সমস্যা নিয়ে যখন হইচই পড়ে গিয়েছে, জানা যায়, শুধু সিদ্ধার্থ বা তাঁর বন্ধু নন, গোটা ভারতেই এই সমস্যার মুখোমুখি হয়েছেন গ্রাহকরা। মুহূর্তেই টুইটার ট্রেন্ডিংয়ে শীর্ষে চলে যায় #হোয়াটসঅ্যাপডাউন। টুইটারে এ নিয়ে মিম ছড়িয়ে পড়ে। কেউ রসিকতা করে লিখেছেন, মার্ক জাকারবার্গ অবশেষে এই ফিচারগুলো সরিয়েই দিলেন। কেউ আবার লিখেছেন, গোটা বিশ্ব দেখল ‘অনলাইন‘, ‘টাইপিং’ ছাড়া হোয়াটসঅ্যাপ। তবে অনেক গ্রাহক আবার আশঙ্কা প্রকাশও করেছেন। কেউ কেউ বলেছেন, তা হলে কি হ্যাক হয়ে গেল হোয়াটসঅ্যাপ অ্যাকাউন্ট? 

ওয়েবসাইট ডাউন ডিটেক্টর জানাচ্ছে, শুধু ভারত নয়, ব্রিটেন, ইউরোপ এবং এশিয়ার বিশাল একটা অংশে সমস্যার মুখে পড়েছে হোয়াট্সঅ্যাপ। ভারতে এই সমস্যাটা শুরু হয়েছে শুক্রবার রাত ৮.৩৯ মিনিটে। ডাউন ডিটেক্টরের মতে, গ্রাহকদের মধ্যে ৬৭ শতাংশ জানিয়েছেন যে, ‘লাস্ট সিন’ লেখাটা তাঁদের অ্যান্ড্রয়েড বা আই ফোনে দেখতে পাচ্ছেন না। ২৬ শতাংশ গ্রাহক আবার হোয়াটস্যাপ কানেকশনের সমস্যার কথা বলেছেন। ৬ শতাংশ জানাচ্ছেন, হোয়াটসঅ্যাপে লগ ইন করতে গেলে ‘এরর’ দেখাচ্ছে।

আরও পড়ুন: চিনা খাবার বয়কটের কথা বলে সোশ্যাল মিডিয়ায় ট্রোলড মন্ত্রী রামদাস অটওয়ালে

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, বড় মাপের প্রযুক্তিগত কোনও সমস্যা হয়ে থাকতে পারে। সার্ভারের সমস্যার কথাও উড়িয়ে দিচ্ছেন না তাঁরা। গত এপ্রিলেও বেশ কিছু সমস্যার মুখে পড়ে ছিল হোয়াটসঅ্যাপ। তবে এ বারের সমস্যা নিয়ে হোয়াটসঅ্যাপ কর্তৃপক্ষের তরফে শুক্রবার গভীর রাত পর্যন্ত কোনও প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি। তবে রাত দেড়টা নাগাদ হোয়াটসঅ্যাপের সমস্যা ঠিক হয়ে যায়। 

আরও পড়ুন: অবাক জলপান: মানুষের হাত থেকে সরাসরি জল খাচ্ছে সাপ!

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন