• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

জ্বালানীর দামবৃদ্ধি নিয়ে সরব বরুণ, অস্বস্তিতে বিজেপি

Varun Gandhi
বরুণ গাঁধী। —ফাইল ছবি

Advertisement

সিবিআই সঙ্কটে যখন জেরবার নরেন্দ্র মোদী, ঠিক তখনই পেট্রল-ডিজেলের দামবৃদ্ধি নিয়ে সরব হলেন বিতর্কিত বিজেপি সাংসদ বরুণ গাঁধী। ভারতে কেন এই মূল্যবৃদ্ধির হার বেশি এবং কেন তার নিয়ন্ত্রণ প্রয়োজন, এই নিয়ে প্রবন্ধ লিখে দলকে বেশ অস্বস্তিতে ফেলে দিয়েছেন  মেনকা-তনয়।

গত কাল বরুণ টুইট করে বলেছিলেন, তিনি সাংসদদের বেতন বৃদ্ধির প্রতিবাদ জানিয়েছিলেন বলে প্রধামন্ত্রীর সচিবালয় থেকে তাঁর কাছে নাকি ফোন আসে। বলা হয়— কেন এ সব কথা বলছেন? সোজা কথায় প্রধানমন্ত্রীর সচিবালয় বিষয়টি উত্থাপন করতে তাঁকে মানা করে। বরুণ নিজে বেতনবৃদ্ধি তো দূরের কথা, বেতন কমানোর পক্ষে।

আজ তেলের দাম বাড়া নিয়ে বরুণ লিখেছেন, ‘‘অন্যান্য দেশের তুলনায় ভারতে এই বৃদ্ধির হার বেশি। তাতে সার্বিক ভাবে মূল্যবৃদ্ধির হারও বাড়ছে। সাধারণ মানুষের প্রাত্যহিক জীবনে নেতিবাচক প্রভাব ফেলছে। তেল ও গ্যাসের উপর নির্ভরশীলতার যে নীতি, সেটি আমাদের পুনর্বিবেচনা করা প্রয়োজন।’’ তাঁকে প্রশ্ন করা হলে অবশ্য তিনি বলেন, এটা মোদী সরকারের বিরোধী কোনও রাজনৈতিক বক্তব্য নয়। এটি অর্থনীতি নিয়ে একটি বিশ্লেষণ।

বরুণ যা-ই বলুন, বিজেপিতে কিন্তু এই লেখা নিয়ে তীব্র প্রতিক্রিয়া হয়েছে। অর্থমন্ত্রী রীতিমতো ক্ষুব্ধ। উত্তরপ্রদেশে সুলতানপুর কেন্দ্রের সাংসদ বরুণ। বিজেপি সূত্র বলছে, মোদী এবং অমিত শাহ এ বার ওঁকে মনোনয়ন না দেওয়ার কথাও ভাবছেন। এই অবস্থায় বরুণ তলায় তলায় রাহুল গাঁধী তথা কংগ্রেস শীর্ষ নেতাদের সঙ্গে যোগাযোগ রাখছেন। তিনি নাকি উপযুক্ত সময়ের জন্য অপেক্ষা করছেন, যখন তিনি দলের বিরুদ্ধে বিদ্রোহ ঘোষণা করবেন।

সবাই যা পড়ছেন

Advertisement

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন