• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

দ্রুত গলছে সুমেরুর বরফ, গত ৫০ বছরে দ্বিতীয় সর্বাধিক

ARCTIC SEA ICE LOSS
উদ্বেগজনক ভাবে বরফ গলছে সুমেরু সাগরে। ছবি সৌজন্যে- নাসা।

উষ্ণায়নের জন্য অত্যন্ত দ্রুত হারে গলে যাচ্ছে সুমেরু সাগরের (‘আর্কটিক সি’) বিশাল বিশাল পুরু বরফের চাঙড়। এই মাসের প্রথমার্ধ পর্যন্ত যতটা বরফ গলেছে সুমেরু সাগরে তা গত ৫০ বছরে দ্বিতীয় সর্বাধিক। এর চেয়ে বেশি বরফ এর আগে একবারই গলেছিল সুমেরু সাগরে। আট বছর আগে, ২০১২-য়।

উপগ্রহের পাঠানো তথ্যাদি বিশ্লেষণ করে এ কথা জানিয়েছে মার্কিন মহাকাশ গবেষণা সংস্থা নাসা ও আমেরিকার ন্যাশনাল স্নো অ্যান্ড আইস ডেটা সেন্টার (এনএসআইডিসি)।

নাসা এবং এনএসআইডিসি জানাচ্ছে, এ বছরের ১৫ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত সুমেরু সাগরের ৯ লক্ষ ৫৮ হাজার বর্গ মাইল (বা, ২৪ কোটি ৮০ লক্ষ বর্গ কিলোমিটার) এলাকার বরফ গলে গিয়েছে।

এই ভাবেই বরফ গলে গিয়েছে সুমেরু সাগরে। 

বিজ্ঞানীরা জানিয়েছেন, সুমেরু সাগরের বরফ এ বার অনেক বেশি পরিমাণে গলে যাওয়ার জন্য মূলত দায়ী সাইবেরিয়ার তাপপ্রবাহ।

২০০৭ থেকে ২০১২, এই ৬ বছরেই সুমেরু সাগরের বরফ গলে যাওয়ার হার ছিল রীতিমতো উদ্বেগজনক। গত ৫০ বছরে সেই হার সর্বাধিক হয়েছিল ২০১২-য়। এ বার যে পরিমাণে বরফ গলেছে সুমেরু সাগরে তা গত পাঁচ দশকে দ্বিতীয় সর্বাধিক। প্রায় দেড় কোটি বর্গ মাইল এলাকা জুড়ে গলে গিয়েছিল সুমেরুর বরফ।

১৫ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত যে ভাবে বরফ গলেছে সুমেরু সাগরে, দেখুন ভিডিয়োয়

শীতে প্রায় গোটা সুমেরু সাগরই ঢেকে যায় পুরু বরফের চাদরে। বরফে ঢেকে যায় লাগোয়া এলাকাগুলিও। ফিবছরই শেষ বসন্ত আর গ্রীষ্মে সেই বরফের চাদর আর চাঙড়গুলি গলে পাতলা হয়ে যায়। আবার শীত আর শরতে তা পুরু হয়ে ছড়িয়ে পড়ে গোটা সুমেরু সাগরে।

এই বিশাল এলাকাজুড়েই এ বার গলে গিয়েছে সুমেরু সাগরের বরফ।

নাসা জানাচ্ছে, এ বছর যে হারে বরফ গলতে শুরু করেছে সুমেরু সাগরে তার যথেষ্টই প্রভাব পড়তে পারে স্থানীয় বাস্তুতন্ত্র এবং আঞ্চলিক ও বিশ্বের আবহাওয়ার উপরে। এর ফলে, আটলান্টিক ও প্রশান্ত মহাসাগরে জলস্রোতের ধরনও বদলে যাওয়ার আশঙ্কা করছেন বিজ্ঞানীরা।

নাসার বিজ্ঞানীদের বক্তব্য, সাইবেরিয়ার তাপপ্রবাহের জন্যই এ বছর সুমেরু সাগরে বরফ গলার সময় অনেকটা এগিয়ে এসেছে। এই তাপপ্রবাহের জন্যই গড় তাপমাত্রার চেয়ে এ বছর সুমেরুর তাপমাত্রা বেড়ে গিয়েছে ১৪ থেকে ১৮ ডিগ্রি ফারেনহাইট (বা, ৮ থেকে ১০ ডিগ্রি সেলসিয়াস)।

সুমেরু সাগরের বরফ এ বছর আরও বেশি পরিমাণে গলে যাওয়ার আরও একটি কারণ খুঁজে পেয়েছেন বিজ্ঞানীরা। তাঁরা দেখেছেন, আটলান্টিক মহাসাগরের উষ্ণ জলপ্রবাহও নীচ থেকে তাতিয়ে দিচ্ছে সুমেরু সাগরকে। তার ফলে আরও দ্রুত হারে অনেক বেশি এলাকা জুড়ে এ বছর গলে গিয়েছে সুমেরু সাগরের বরফের চাদর ও পুরু চাঙড়গুলি। এর ফলে আবার যখন বরফের চাদর আর চাঙরগুলি জমে যাবে তখন আর আগের মতো অতটা পুরু হবে না সেগুলি।

ছবি ও ভিডিয়ো সৌজন্যে: নাসা।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন