এখনও দারুণ টেনশনে রয়েছে ইসরো। আগামী ৬ সেপ্টেম্বর চাঁদের বুকে আছড়ে পড়বে না তো ল্যান্ডার ‘বিক্রম’?

১৮ দিন পর চাঁদের বুকে ল্যান্ডার নামানোর আগে এখনও অনেক পথ পেরতে হবে ভারতের দ্বিতীয় চন্দ্রযানকে। বহু বাধা টপকে চাঁদের দক্ষিণ মেরুর কাছাকাছি একটি এলাকায় পা ছোঁয়াবে চন্দ্রযান-২-এর শরীরের ভিতরে থাকা ল্যান্ডার ‘বিক্রম’ আগামী ৬ সেপ্টেম্বর রাত ১টা ৫৫ মিনিটে (ইংরেজি ক্যালেন্ডারে ৭ সেপ্টেম্বর)। যা ভারতের আগে আর কোনও দেশের পক্ষে সম্ভব হয়নি।

তার কিছু ক্ষণের মধ্যেই ল্যান্ডারের পেট থেকে বেরিয়ে চাঁদের মাটি চষতে শুরু করবে রোভার ‘প্রজ্ঞান’। মঙ্গলবার সকালে চাঁদের প্রথম কক্ষপথে ঢুকে পড়ার পর সাংবাদিক সম্মেলনে এ কথা জানিয়েছেন ইসরোর চেয়ারম্যান কে সিভন। রোভার প্রজ্ঞানকে পেটে নিয়ে ল্যান্ডার বিক্রম আগামী ২ সেপ্টেম্বর চাঁদের কক্ষপথে চন্দ্রযান-২-এর শরীর থেকে আলাদা হয়ে যাবে।

সিভন বলেছেন, ‘‘এ দিন আমরা একটি বড় মাইলফলক পেরলাম। চন্দ্রযান-২-কে চাঁদের কক্ষপথে ঠেলেঠুলে ঢোকাতে সময় লেগেছে ১৭৩৮ সেকেন্ড বা ২৮ মিনিট ৯৬ সেকেন্ড। কাজটা শুরু হয়েছিল সকাল ৯টা নাগাদ।’’

আরও পড়ুন- ব্রহ্মাণ্ডের সৃষ্টিরহস্যের জট খুলতে আরও রোমাঞ্চকর অভিযানের পথে ইসরো

আরও পড়ুন- চাঁদে এখন না নামলে পরে খুবই পস্তাতে হত ভারতকে!​

তবে চাঁদের বুকে ল্যান্ডারকে নিরাপদে নামাতে সবচেয়ে কঠিন কাজটাই এখনও বাকি রয়েছে। যাতে কোনও সংঘর্ষ ছাড়াই বিক্রম নামতে পারে চাঁদের বুকে, সে জন্য চাঁদের কক্ষপথের দিকে ৯০ ডিগ্রি কোণে হেলে পড়ে চন্দ্রযান-২-কে প্রদক্ষিণ করতে হবে। যদিও চাঁদের কক্ষপথে ঢোকার পর চন্দ্রযান-২ এখন ৮৮ ডিগ্রি কোণে হেলে রয়েছে।

ভারতের দ্বিতীয় চন্দ্রাভিযান সম্পর্কে এই তথ্যগুলি জানেন কি?

ইসরোর চেয়ারম্যান বলেছেন, ‘‘ধীরে ধীরে ওই কৌণিক অবস্থানকে ৯০ ডিগ্রিতে নিয়ে যাওয়া হবে। তার জন্য চাঁদকে প্রদক্ষিণ করতে চন্দ্রযান-২-কে ঘোরাতে হবে মোট পাঁচটি কক্ষপথে। এ দিন থেকে শুরু করে চাঁদকে প্রদক্ষিণের প্রথম তিনটি কক্ষপথের চেহারা হবে উপবৃত্তাকার। ডিমের মতো। শেষের দু’টি কক্ষপথ হবে বৃত্তাকার। উপবৃত্তাকার কক্ষপথে থাকলে চাঁদ থেকে সর্বাধিক ও সর্বনিম্ন, দু’টি উচ্চতায় থাকবে ভারতের মহাকাশযান। আজ কক্ষপথে ঢোকার পর চাঁদের মাটি থেকে ১৮ হাজার ৭২ কিলোমিটার উপরে রয়েছে চন্দ্রযান-২। যা পঞ্চম কক্ষপথে গেলে হবে ১২৮ কিলোমিটার। তবে উদ্বেগে রয়েছি। কারণ, হিসেবে একটু ভুলচুক হয়ে গেলেই চাঁদের বুকে আছড়ে পড়ে পারে বিক্রম।’’

আরও পড়ুন- ২৯ দিনের পথ পেরিয়ে চাঁদের কক্ষপথে ঢুকে পড়ল চন্দ্রযান-২​

এর পর আগামী কাল, ২১ অগস্ট ইসরো মহাকাশযানটিকে পাঠাবে দ্বিতীয় উপবৃত্তাকার কক্ষপথে। যেখানে চাঁদের মাটি থেকে চন্দ্রযান-২-এর সর্বাধিক উচ্চতা হবে ৪ হাজার ৩০৩ কিলোমিটার। চন্দ্রযান-২-কে সেই কক্ষপথে ঢোকানো হবে কাল, দুপুর ১২টা থেকে দেড়টার মধ্যে। তার পর আরও একটি উপবৃত্তাকার কক্ষপথে চন্দ্রযান-২ ঢুকবে আগামী ২৮ অগস্ট। বিকেল সাড়ে পাঁচটা থেকে ছ’টার মধ্যে। পরের দু’টি বৃত্তাকার কক্ষপথে ঢুকবে ৩০ অগস্ট ও ১ সেপ্টেম্বর। ২ সেপ্টেম্বর চন্দ্রযান-২ থেকে চাঁদের কক্ষপথেই আলাদা হয়ে যাবে ল্যান্ডার বিক্রম।

আরও পড়ুন- ৩০ বছরের মধ্যেই চাঁদে বড় শিল্পাঞ্চল গড়ে ফেলবে মানুষ!​

আরও পড়ুন- চার বছরের মধ্যেই চাঁদের পাড়ায় ‘বাড়ি’ বানাচ্ছে নাসা!​