ঘুমিয়ে পড়েছে বিক্রম? চন্দ্রপৃষ্ঠ থেকে ২.১ কিমি আগেই মুন ল্যান্ডারের সঙ্গে ইসরোর যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে গিয়েছে। তাতে কিছুটা ধাক্কা খেতে হয়েছে ভারতীয় গবেষণা সংস্থাকে। গোটা দুনিয়ার আলোচনার কেন্দ্রে চলে আসা এমন মিশন ব্যর্থ হওয়ার পর আবেগ চেপে রাখতে পারেননি ইসরো চেয়ারম্যান কে শিবন। তবে এখনই হাল ছাড়ছেন না তিনি। বললেন, ‘‘আগামী চোদ্দ দিন ধরে ল্যান্ডার বিক্রমের সন্ধান চালানো হবে।’’

মিশন ব্যর্থ হওয়ার পর, দূরদর্শনকে দেওয়া প্রথম সাক্ষাৎকারে শিবন বলেন, ‘‘মিশনের শেষলগ্নে সবকিছু ঠিকঠাক চলেনি। কিন্তু, শেষ পর্যায়ে ল্যান্ডারের সঙ্গে যোগাযোগ হারিয়ে যায়। তার পর আর তার সঙ্গে যোগাযোগ করা যায়নি।’’ কী কারণে বিক্রমের সঙ্গে যোগাযোগ হারিয়ে গেল? এ নিয়ে অবশ্য এখনই স্পষ্ট করে কিছু বলেননি শিবন। তিনি বলেন, ‘‘বিক্রমের অবতরণ পরিকল্পনা মতোই চলছিল। কিন্তু, চন্দ্রপৃষ্ঠ থেকে ২.১ কিমি উচ্চতায় তার সঙ্গে ভূপৃষ্ঠের যোগাযোগ হারিয়ে যায়। সমস্ত তথ্য খতিয়ে দেখা হচ্ছে।’’

ইসরোর তরফে টুইটে দাবি করা হয়েছে, অরবিটারের আয়ু প্রাথমিক ভাবে এক বছর ধরা হলেও, চাঁদের কক্ষপথে তা সাত গুণ বেড়ে সাত বছর হবে। অবশ্য কেন অরবিটারের আয়ু বাড়বে তা নিয়ে কোনও ব্যাখ্যা দেওয়া হয়নি। এই মিশন ব্যর্থ হওয়ার পর নিজেকে ধরে রাখতে পারেননি শিবন। প্রধানমন্ত্রীর সামনেই কেঁদে ফেলেন তিনি। মোদী তাঁর পিঠ চাপড়ে সান্ত্বনাও দেন। এ দিন প্রধানমন্ত্রীর ভূয়সী প্রশংসা করেছেন ইসরো চেযারম্যান।

আরও পড়ুন: চন্দ্রযানের মাত্র ৫ শতাংশ খোয়া গিয়েছে, কাজ করে যাবে অরবিটার, বলছে ইসরো-র সূত্র​

আরও পড়ুন: এই শ্রম বৃথা যাবে না, পাশে আছে গোটা দেশ, ইসরোর বিজ্ঞানীদের বললেন মোদী​