• সংবাদ সংস্থা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

ভারতে পড়ুয়াদের হাতে তৈরি হল সৌরশক্তিচালিত স্বয়ংক্রিয় বাস

solar bus
সৌরশক্তিচালিত এই বাসই তৈরি করেছেন পড়ুয়ারা। ছবি: টুইটার থেকে সংগৃহীত।

ভারতে তৈরি হল সৌরশক্তিচালিত চালকহীন বাস। প্রায় ৩০০ পড়ুয়া ও ৫ অধ্যাপক মিলে সেটি তৈরি করেছেন। তাও আবার বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাসের মধ্যেই। পৃথিবীতে এখনও পর্যন্ত যে ক’টি স্বয়ংক্রিয় যান তৈরি হয়েছে, সেগুলি পেট্রল, ডিজেল, সিএনজি অথবা বিদ্যুৎ চালিত। এই প্রথম সৌরশক্তি চালিত স্বয়ংক্রিয় যান তৈরি হল বলে বিশ্ববিদ্যালয়ের দাবি। তাই এই উদ্ভাবনে শোরগোল পড়ে গিয়েছে।

পঞ্জাবের ফওয়াড়ায় লাভলি প্রফেশনাল ইউনিভার্সিটিতে সম্প্রতি ওয়ার্কশপ চলছিল। সেখানে প্রায় ৩০০ পড়ুয়া এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের পাঁচ অধ্যাপক মিলে বাসটি তৈরি করেছেন। তাতে খরচ পড়েছে প্রায় ১৫ লক্ষ টাকা। ১ হাজার ৫০০ কেজি ওজনের বাসটিতে ১৫ জন যাত্রী বসার জায়গা রয়েছে। বাসের উপরে ও চারপাশে রয়েছে সোলার প্যানেল, যার মাধ্যমে ধরে রাখা হয় সৌরশক্তি। সেখান থেকে চার্জ দেওয়া হয় গাড়ির ব্যাটারিতে।

সূর্যের আলোয় ব্যাটারি চার্জ হওয়া অবস্থায় যতদূর ইচ্ছা একটানা বাসটি চালানো যাবে। আর একবার চার্জ দিলে পাড়ি দেওয়া যাবে ৭০ কিলোমিটার পথ। বাসে যে সোলার প্যানেল লাগানো রয়েছে, তা ২ কিলোওয়াট বিদ্যুৎউৎপন্ন করতে সক্ষম। ২ কিলোওয়াট বিদ্যুৎ দিয়ে ৬টি লেড অ্যাসিড ব্যাটারি চার্জ দেওয়া সম্ভব।

আরও পড়ুন: দেড় দশক ধরে মঙ্গলের মাটিতে থাকা ‘অপরচুনিটি’ এখনও কোমায়!​

আরও পড়ুন: এই প্রথম আমাদের অস্থিতেও রক্তনালীর হদিশ মিলল​

লাভলি বিশ্ববিদ্যালয়ের এই কর্মশালার নেতৃত্বে ছিলেন মনদীপ সিংহ। তিনি বলেন, এটা চালকবিহীন বাস। রাস্তার হাল হকিকত এবং পারিপার্শ্বিক পরিস্থিতি বুঝে আপনাআপনি চলবে। সূর্যের আলোয় লাগাতার চার্জ দিলে যতদূর খুশি চালানো যাবে বাসটিকে। একবার চার্জ দিলে ৭০ কিলোমিটার পাড়ি দেওয়া যাবে।

এর আগে, ২০১৪ সালে সৌরশক্তিচালিত চালকবিহীন বিশেষ গল্ফ গাড়ি তৈরি করেছিলেন বলে সংবাদমাধ্যমে জানিয়েছেন মনদীপ, গল্ফের ময়দানে খেলোয়াড়দের এদিক ওদিক নিয়ে যেতে যা ব্যবহার করা হয়। সেখান থেকেই বাস তৈরির কথা মাথায় আসে বলে দাবি তাঁর। দুর্ঘটনা এড়াতে বিশেষ সেন্সর বসানো হয়েছে বাসটিতে। যাতে পথ বুঝে এগোতে পারে সেটি। তবে কোনওরকম ঝুঁকি নিতে নারাজ বিশ্ববিদ্যালয়ের পড়ুয়ারা। তাই আপাতত গাড়িটিকে ক্যাম্পাসের অন্দরেই চালানোর পরিকল্পনা রয়েছে তাঁদের। বাসটিকে রাস্তায় নামাতে গেলে আরও উন্নত প্রযুক্তি লাগবে। খুব শীঘ্র সেই কাজ শুরু হবে বলে জানিয়েছেন মনদীপ।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন