১৪ দিনের আগের ব্যর্থতা কাটিয়ে ফের মহাকাশে পাড়ি দিল ভারতীয় মহাকাশ গবেষণা সংস্থা (ইসরো)। তারা জানায়, বৃহস্পতিবার ভোর ৪টে ৪ মিনিটে অন্ধ্রপ্রদেশের শ্রীহরিকোটার সতীশ ধওয়ন মহাকাশ গবেষণা কেন্দ্র থেকে পিএসএলভি রকেটে চাপিয়ে ‘আইআরএনএস ১আই’ নামে একটি কৃত্রিম উপগ্রহকে মহাকাশে পাঠানো হয়েছে। সেটি নির্বিঘ্নেই নির্দিষ্ট কক্ষপথে প্রতিস্থাপিত হয়েছে। ভারতের নিজস্ব ‘গ্লোবাল পজিশনিং সিস্টেম’ বা জিপিএস ব্যবস্থার অঙ্গ এই কৃত্রিম উপগ্রহটি।

২৯ মার্চ শ্রীহরিকোটা থেকেই ‘জিস্যাট-৬এ’ নামে একটি কৃত্রিম উপগ্রহ পাঠানো হয়। কিন্তু মহাকাশে পৌঁছনোর পরে তার সঙ্গে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে যায় ভারতের বিজ্ঞানীদের। সেই বিপর্যয়ে ভারতের প্রায় ২৭০ কোটি টাকার প্রকল্প মুখ থুবড়ে প়়ড়ার জোগাড়। ইসরোর চেয়ারম্যান কৈলাসবাদিবু শিবনের দাবি, ভূপৃষ্ঠ থেকে ৩৬ হাজার কিলোমিটার উপরে থাকা ‘জিস্যাট-৬এ’-র অবস্থান জেনেছেন। যোগাযোগের চেষ্টা চলছে। 

এ দিন পাঠানো উপগ্রহটিও বদলি হিসেবেই পাঠানো হয়েছে। ইসরো সূত্রের খবর, জিপিএস-এর গুরুত্ব বুঝেই ‘ইন্ডিয়ান রিজিওনাল নেভিগেশন স্যাটেলাইট সিস্টেম’ তৈরির কাজ শুরু হয়। সাতটি কৃত্রিম উপগ্রহের এই দলকে ‘নাবিক দল’ বা পথপ্রদর্শকও বলা হয়। ইসরোর এক মুখপাত্র বলেন, ‘‘২০১৩ সালে পাঠানো প্রথম উপগ্রহটি (১এ) ২০১৬ সালে বিগড়ে যায়। ২০১৭-য় বদলি হিসেবে একটি উপগ্রহ (১এইচ) পাঠানো হয়েছিল। সেটি নির্দিষ্ট কক্ষপথে পৌঁছতে পারেনি। এ বার তাই (১আই)-কে পাঠানো হয়েছে।’’