হদিশ মিলল এমন একটি গ্রহের, যার আকাশে ওঠে, অস্ত যায় তিন-তিনটি ‘সূর্য’। যার মানে, তিন-তিনটি তারা বা নক্ষত্রকে পাক মারে সেই ভিন গ্রহটি।

এই ভিন গ্রহটি রয়েছে আমাদের থেকে অনেক অনেক দূরে। পৃথিবী থেকে তার দূরত্ব ৩৪০ আলোকবর্ষ।

এই ভিন গ্রহ ‘এইচডি-১৩১৩৯৯এবি’-র আকাশে দিনে তিন বার সূর্য ওঠে। তিন বার অস্ত যায়। ওই ভিন গ্রহটি রয়েছে তার একটি ‘সূর্যে’র খুব কাছাকাছি। তাই অসম্ভব তাপে তার গা পুড়ে যাচ্ছে! তাপমাত্রা প্রায় ৫৮০ ডিগ্রি সেলসিয়াস। আমাদের এই সৌরমণ্ডলের সবচেয়ে বড় আর ভারী গ্রহ বৃহস্পতির চেয়েও চার গুণ বেশি ভারী এই ভিন গ্রহটি। আর সেই ভিন গ্রহেও রয়েছে নানা ঋতু, আমাদের মতোই। তবে সেই ঋতুগুলো খুব বড় বড়। একটা মানুষের আয়ুর মতো প্রায় ৭০/৮০ বছরে এক-একটা ঋতু হয় ওই ভিন গ্রহে।

তবে বিজ্ঞানীরা জানাচ্ছেন, আমাদের পৃথিবীর কাছে এই ভিন গ্রহটি একেবারেই শিশু! কারণ, এই গ্রহটির জন্ম সাকুল্যে ১ কোটি ৬০ লক্ষ বছর আগে। পৃথিবীর জন্ম হয়েছিল প্রায় ৪৫০ কোটি বছর আগে। আর আমাদের সূর্যের জন্ম হয়েছিল প্রায় ৫০০ কোটি বছর আগে। এখনও পর্যন্ত যে ক’টি ভিন গ্রহ আবিষ্কৃত হয়েছে, তার মধ্যে ‘এইচডি-১৩১৩৯৯এবি’ গ্রহটিই সর্বকনিষ্ঠ।

আরও পড়ুন: গুরুপ্রণাম? বৃহস্পতির পাড়ায় পা, মঙ্গলের ভোরে দরজায় কড়া নাড়া!

এর আগেও অবশ্য বিজ্ঞানীরা ‘আলফা সেনটাওরি-বিবি’ নামে একটি ভিন গ্রহের সন্ধান পেয়েছিলেন, যেখানে দিনভর, রাতভর, বছর ভর আলো ফেলতে দেখা যায় তিন-তিনটি সূর্যকে। যাকে বলে ‘টার্নারি স্টার সিস্টেম’। একই সৌরমণ্ডলে সূর্যের মতো তিন-তিনটি তারা। মহাকাশের বেশির ভাগ সৌরমণ্ডলেই অবশ্য ‘বাইনারি স্টার সিস্টেম’ রয়েছে। যেখানে সূর্যের মতো দু’টি তারাকে পাক মারছে কোনও গ্রহ। আমেরিকার আরিজোনা বিশ্ববিদ্যালয়ের ড্যানিয়েল আপাইয়ের নেতৃত্বে একটি গবেষকদল ‘এইচডি-১৩১৩৯৯এবি’ নামের এই ভিন গ্রহটি আবিষ্কার করেছে। তাঁরা জানিয়েছেন, এই গ্রহটির আকাশে তিনটি তারাকেই দেখা যায়। এদের মধ্যে যে তারা দু’টি অপেক্ষাকৃত ঝাপসা, তারা একে অপরের অনেকটাই কাছাকাছি রয়েছে।