• সবাই যা পড়ছেন

  • সংবাদ সংস্থা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

মদ্যপান নিষেধ, তাও আন্তর্জাতিক স্পেস স্টেশনে পৌঁছে গেল ১২ বোতল ‘ফাইন ফ্রেঞ্চ ওয়াইন’

Space Wine
মহাকাশে পৌঁছে গেল মদের বোতল। ছবি: টুইটার থেকে নেওয়া।

Advertisement

ইন্টারন্যাশনাল স্পেস স্টেশনে মদ্যপান করার অনুমতি নেই মহাকাশচারীদের। কিন্তু তাওকেন তাঁদের হাতে পৌঁছে গেল এক ডজন ‘ফাইন ফেঞ্চ ওয়াইন’? এই প্রশ্নই এখন ঘুরে বেড়াচ্ছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। তবে শুধু প্রশ্ন নয়, এর উত্তরও পাওয়া গিয়েছে।

গত বছর নভেম্বরে ফ্রান্সের বোডৌ থেকে এই বারো বোতল ‘ফ্রেঞ্চ রেড’ পৌঁছে দেওয়া হয় আন্তর্জাতিক স্পেস স্টেশনে। তবে এখনও সেগুলি খোলা হয়নি। আর খোলা হবেও না। কারণ সেগুলি মোটেই বিজ্ঞানীদের পান করার জন্য পাঠানো হয়নি, পাঠানো হয়েছে বৈজ্ঞানিক পরীক্ষানিরীক্ষার জন্য।

আন্তর্জাতিক স্পেস স্টেশনে ওই মদের বোতলগুলি রেখে দেখা হবে, ভার শূন্যতা ও মহাকাশের নানা বিকিরণের মধ্যে কী রকম পরিবর্তন আসে সেগুলির মধ্যে।

আরও পডুন: ইন্দোনেশিয়ায় দেখা মিলল বিশ্বের সব থেকে বড় ফুলের

মদের বোতলগুলি মহাকাশ কেন্দ্রে, যৌথভাবে পাঠিয়েছে ফ্রান্সে বোডৌ-এর এক বিশ্ববিদ্যালয় ও জার্মানির বাভারিয়া প্রদেশ প্রশাসন। ইউরোপে লুক্সেমবার্গের ‘স্পেস কার্গো আনলিমিটেড’ নামের কোম্পানি এগুলি সেখানে পৌঁছে দিয়েছে।

আরও পডুন: পিত্জা গরম করতে গিয়ে ‘রান্না’ হয়ে গেল আস্ত সাপ!

ফ্রান্সের বোডৌ-তে যে মদ তৈরি হয় তা বিশ্বের অন্যতম সেরা। এখানে বছরে কয়েক কোটি বোতল মদ তৈরি হয়। তবে সব মদই যে প্রচুর দামের হয় তা নয়, অনেক সস্তার মদও তৈরি হয় বোডৌ-তে।

আরও পড়ুন: ১ টাকা খরচেই বাড়িতে বসে সুগার, হিমোগ্লোবিন টেস্ট

তবে এটাই প্রথমবার নয় যে মহাকাশে মদ পৌছল। এর আগে ১৯৭৫ সালে এক ফরাসি মহাকাশচারী সঙ্গে করে এক বোতল মদ নিয়ে গিয়েছিলেন, যা ১৯৮৫ সালে ফিরে আসে।

দেখুন মহাকাশে ১২ বদল মদ পৌছন ভিডিয়োন:

 

সবাই যা পড়ছেন

Advertisement

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন