• নিজস্ব প্রতিবেদন
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

বিনোদন

অমিতাভকে অস্বস্তিকর প্রশ্ন থেকে বাবাকে বাড়িছাড়া করা, বার বার বিতর্কে জড়িয়েছেন পূজা বেদী

শেয়ার করুন
১৮ pooja
১৯৯১ সালে বলিউডে প্রবেশ তাঁর। ফিল্মের নাম ছিল ‘বিষকন্যা’। ফিল্মে মুখ্য ভূমিকায় ছিলেন পূজা বেদী। কিন্তু তাঁর ফিল্মি কেরিয়ার খুব বেশি দূর এগোয়নি।
১৮ bolly
এর পর ২০১১ সাল পর্যন্ত ফিল্ম করেছেন ঠিকই, কিন্তু সংখ্যাটা খুবই কম। আর তার চেয়েও বড় হল, ‘বিষকন্যা’-র পর আর কোনও ফিল্মেই মুখ্য ভূমিকায় সুযোগ পাননি তিনি। হাতে গোনা যে কটা ফিল্মে সুযোগ পেয়েছিলেন, সবই ছিল সাপোর্টিং চরিত্রে।
১৮ bolly
ফিল্মি কেরিয়ারে তেমন সাফল্য না পেলেও পূজা বেদী কিন্তু প্রথম থেকেই ইন্ডাস্ট্রিতে নিজের জায়গাটা ধরে রেখেছেন। তাঁকে নিয়ে চর্চায় মশগুল থেকেছে বলিউড।
১৮ bolly
কখনও তাঁর ব্যক্তিগত সম্পর্ক নিয়ে, কখনও অমিতাভ বচ্চনকে অপ্রীতিকর প্রশ্ন করা নিয়ে, তো কখনও সলমন খানের সঙ্গে সঙ্ঘাতে গিয়ে বারবারই শিরোনামে থেকে গিয়েছেন তিনি।
১৮ bolly
পূজা বেদী বলি অভিনেতা কবীর বেদীর মেয়ে। তাঁর মা প্রতিমা বেদী ছিলেন এক জন ক্ল্যাসিকাল নৃত্যুশিল্পী। বাবা-মা দু’জনেই ভীষণ খোলামেলা ছিলেন। সে কারণে পূজা বেদীর বেড়ে ওঠা অনেকটা আলাদা।
১৮ bolly
পূজা বেদী প্রথম থেকেই ফিল্মে আসতে চেয়েছিলেন। তবে তাতে তাঁর মায়ের খুব একটা মত ছিল না। বাবার সাহায্যে ফিল্মে ডেবিউ করেন পূজা। কেরিয়ার শুরুর পর বারবারই শিরোনামে এসেছেন সম্পর্কের কারণে।
১৮ bolly
কখনও আদিত্য পাঞ্চোলি, কখনও কোরিয়োগ্রাফার হানিফ হিলাল... বিভিন্ন সময় অনেকের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক ছিল তাঁর। পূজা নিজেও খুব একটা অস্বীকার করেননি এ সব সম্পর্কের কথা।
১৮ bolly
পূজার জীবনে সবচেয়ে শকিং ছিল তাঁর ভাইয়ের মৃত্যু। তাঁর ভাই সিদ্ধার্থ আত্মঘাতী হন বিদেশে উচ্চশিক্ষার সময়। তিনি স্কিত্‌জোফ্রেনিয়ায় আক্রান্ত ছিলেন। ১৯৯৭ সালে তিনি আত্মহত্যা করেন মাত্র ২২ বছর বয়সে।
১৮ poja
এর পর পূজার মা প্রতিমা বেদীও সংসার ত্যাগ করেন। সব ছেড়ে তিনি আধ্যাত্মিকতায় যুক্ত হয়ে যান। হিমালয়ের বিভিন্ন প্রান্তে কেটেছিল তাঁর শেষ জীবন। মানস সরোবরে যাওয়ার সময় এক দুর্ঘটনায় তাঁরও মৃত্যু হয়।
১০১৮ boly
পর পর জীবনে দুটো আঘাত পান পূজা বেদী। প্রথমে ভাই ও পরে মায়ের মৃত্যুতে অনেকটাই একা হয়ে পড়েছিলেন তিনি।
১১১৮ bolly
কবীর বেদীর জীবনে কিন্তু খুব একটা প্রভাব ফেলেনি এই ঘটনাগুলো। কবীর বেদী নিজের বর্ণময় জীবন নিয়েই ব্যস্ত ছিলেন।
১২১৮ bolly
১৯৭৪ সালেই প্রতিমা বেদীকে ডিভোর্স দিয়েছিলেন কবীর বেদী। তার পর একাধিক মহিলার সঙ্গে তাঁর নাম জড়িয়েছে। একাধিক বিয়েও করেন। মার্কিন মডেল সুজান হাম্পফ্রেকে ১৯৮০ সালে বিয়ে করেন।
১৩১৮ bolly
২০০১ সালে লন্ডনে কবীরের সঙ্গে আলাপ নিক্কি মুলগাওকরের। বয়সে ২০ বছরের ছোট, রেডিয়ো ও টেলিভিশনের সঞ্চালিকা নিক্কি-কে ১৯৯২ সালে বিয়ে করেন কবীর। ১৩ বছর পরে ২০০৫ সালে ভেঙে যায় তাঁদের দাম্পত্য।
১৪১৮ booly
তৃতীয় ডিভোর্সের পরে ১১ বছর বিয়ে করেননি কবীর। ২০১৬ সালে, নিজের সত্তরতম জন্মদিনের ঠিক দু’দিন আগে তিনি বিয়ে করেন পরভিন দুসাঞ্জকে। কবীরের থেকে পরভিন বয়সে ২৬ বছরের ছোট। কবীর-প্রতিমার মেয়ে পূজার থেকে তিনি বয়সে তিন বছরের ছোট।
১৫১৮ bolly
বাবার এই সম্পর্ক একেবারেই মেনে নিতে পারেননি পূজা বেদী। সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করে সেটা খুব স্পষ্ট করে দিয়েছিলেন। তার উপর জানা যায়, জুহুর যে ফ্ল্যাটে কবীর দেবী থাকতেন, সেটা নাকি পূজার মা প্রতিমা বেদীর নামে ছিল।
১৬১৮ blly
পূজা বেদী বরাবরই খোলামেলা মনের। কিন্তু বাবার এই চতুর্থ বিয়ে নিয়ে পূজা এতটাই মানসিক আঘাত পেয়েছিলেন যে, বাবাকে সেই ফ্ল্যাট থেকেও বার করে দেন। এই নিয়ে খুব বিতর্ক হয়েছিল। বিতর্কের জেরে বাবার চতুর্থ বিয়ে এবং সত্ মাকে নিয়ে পোস্ট পরে মুছেও দিয়েছিলেম পূজা।
১৭১৮ bolly
তেমন এক বার এক শো-য়ে অমিতাভ বচ্চনকে অপ্রীতিকর প্রশ্ন করে বিতর্কে জড়িয়েছিলেন। অমিতাভ বচ্চনের মাথার চুলের রং সে সময় ছিল কালো অথচ তাঁর দাড়ি-গোঁফে পাক ধরে গিয়েছিল। পূজা বেদী আচমকাই এটা কী ভাবে সম্ভব, তিনি কোনও হেয়ার ডাই ব্যবহার করেন কি না জিজ্ঞাসা করে বসেন।
১৮১৮ bolly
এই প্রশ্নের জন্য একেবারেই প্রস্তুত ছিলেন না বিগ বি। পরে বিগ বি শো-মালিককে ফোন করে ওই অনুষ্ঠানের সম্প্রচার নাকি বন্ধ করে দিয়েছিলেন।

Advertisement

Advertisement

সবাই যা পড়ছেন

Advertisement

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
বাছাই খবর
আরও পড়ুন