• নিজস্ব প্রতিবেদন
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

বিনোদন

প্রেম কেমন হবে? কল্পনা করতে শিখিয়েছে বলিউডের এই ফিল্মগুলোই

শেয়ার করুন
১০ film
ফিল্ম একটা কল্পনার জগৎ তৈরি করে দেয় আমাদের মনে। ফিল্মের দুষ্টু-মিষ্টি প্রেম কাহিনি কিসোর-কিশোরীদের অনেকেই তাঁর নিজের জীবনে কল্পনা করেন। ভ্যালেন্টাইন ডে-তে রইল এমনই কিছু ফিল্মের হদিস, যেগুলো সর্বকালের সেরা রোম্যান্টিক মুভি।
১০ film
বীর-জারা: ভারতীয় বীর পাকিস্তানি জারার প্রেমে পড়েছিলেন। কিন্তু কাঁটাতার তাঁদের প্রেমের অন্তরায় হয়ে দাঁড়িয়েছিলেন। ভারতীয় চড় সন্দেহে ২২ বছর পাকিস্তানের জেলে কাটাতে হয়েছিল বীরকে। ২২ বছর পর বীর-জারা এক হন। তখনও তাঁদের মধ্যে এতটুকু প্রেমের ঘাটতি হয়নি।
১০ film
দিলওয়ালে দুলহানিয়া লে জয়েঙ্গে: ১৯৯৫ সালের লভ স্টোরি। অথচ এখনও মুখে মুখে এই ফিল্মের কথাই ঘোরে। এখনও প্রেমের গান বললেই এই ফিল্মের গান মাথায় আসে। সিমরান আর রাজের প্রেম-কাহিনি ২৫ বছর পরও অক্ষত রয়ে গিয়েছে।
১০ film
মাসান: ২০১৫ সালের ফিল্ম এটা। চিত্রনাট্যই হল ছবির নায়ক। আর এ ছবির প্রকৃত নায়ক যদি বলতে হয়, তা অবশ্যই চিত্রনাট্য। সঙ্গে ছিল ভিকি কৌশলের অনবদ্য অভিনয়। এই দুইয়ের মিশেলে ‘মাসান’ প্রতিটি ফিল্মপ্রেমীর হৃদয়ে গাঁথা হয়ে রয়েছে।
১০ film
ইয়ে জওয়ানি হ্যায় দিওয়ানি: একটা ছেলে যে সারা জীবন মুক্ত বিহঙ্গের মতো সারা বিশ্বে উড়ে বেড়াতে চায়, আর একটা অতি সাধারণ জীবন কাটাতে ইচ্ছুক মেয়ে। দুটো সম্পূর্ণ বিপরীত চরিত্র যখন কাছাকাছি আসে তখন কী হয়? এই ফিল্মটিই সেটা তুলে ধরেছিল দর্শকদের কাছে।
১০ film
শুদ্ধ দেশি রোম্যান্স: ২০১৩ সালের ফিল্ম। রোম্যান্টিক, কমেডি ফিল্ম। প্রয়োজন আদিত্য চোপড়ার এই ফিল্ম লিভ-ইন রিলেশন এবং বিয়ে, এই দুই দৃষ্টিভঙ্গির উপর ভর করে এগিয়েছে। বলিউডের অন্যতম রেম্যান্টিক ফিল্ম এটি।
১০ film
গলিয়োঁ কি রাসলীলা রাম-লীলা: দুটো প্রতিদ্বন্দ্বী পরিবারের ছেলে-মেয়ের মধ্যে প্রেম হয়। জানতে পারলে তাঁদের আলাদা করে দেওয়া হয়। সঞ্জয় লীলা ভন্সালির এই ছবি আবেগ আর প্রেমে ভরপুর।
১০ film
রকস্টার: এক গায়কের গল্প। প্রেম-বিচ্ছেদের দশা কাটিয়ে যখন নিজেকে জনপ্রিয় গায়কের পরিচয় দিয়েছেন, ঠিক সে সময়ই পুরনো প্রেম আবার সামনে এসে যায়। কী হয় তারপর? কোনদিকে মোড় ঘুরবে কাহিনীর? এই নিয়েই এগিয়ে চলে ফিল্মের গল্প।
১০ film
জব উই মেট: এই ফিল্মটা দেখেনি, এরকম খুঁজে পাওয়া বোধহয় কষ্টসাধ্যই হবে। বাচাল গীতার সঙ্গে ট্রেনে পরিচয় আদিত্যর। গীতাকে ভালবেসে ফেলেন তিনি। গীতার ভালবাসা ছিল অন্য কেউ। ঘটনাচক্রে গীতা কিন্তু শেষমেশ আদিত্যর জীবনেই ফিরে আসে। ২০০৭ সালের সেই ফিল্ম পর্দায় এলে, আজও বসে দেখেন মানুষ।
১০১০ bollywood
কুছ কুছ হোতা হ্যায়: ১৯৯৮ সালের এ ফিল্মটা নিয়ে আলাদা করে বলার অপেক্ষা রাখে না। সুপার হিট ফিল্ম ছিল এটা। রোম্যান্টিক ফিল্মের কথা যেখানে হচ্ছে, সেখানে এই ফিল্ম বাদ দেওয়া যায় না।

Advertisement

সবাই যা পড়ছেন

Advertisement

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন
বাছাই খবর
আরও পড়ুন