• নিজস্ব প্রতিবেদন
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

দেশ

ভারতে এল কেটিএম-এর সুপারবাইক ৭৯০ ডিউক, ফিচার্স আর দাম জানেন তো?

শেয়ার করুন
১২ KTM 790 Duke
সুপারবাইকের কেনার সাধ বহু দিনের। তবে তা সাধ্যের মধ্যে থাকলে তো! কিন্তু এ বার বোধহয় সে সাধও পূরণ হবে অনেকের। সোমবার ভারতের বাজারে অস্ট্রিয়ার স্পোর্টস বাইক প্রস্তুতকারী সংস্থা কেটিএম নিয়ে এল ৭৯০ ডিউক। মাঝারি ওজনের সেগমেন্টে এই সুপারবাইকটির খুঁটিনাটিগুলো জানেন কি? দামই বা কত?
১২ KTM 790 Duke
নয় নয় করে দেশের বাজারে সুপারবাইক তো কম নেই। তবে স্ক্যালপেল-এর জন্য অনেকেই অপেক্ষা করছিলেন। হ্যাঁ! বিদেশে কেটিএম ৭৯০ ডিউককে ভালবেসে এই নামেই ডাকা হয়। ধারাল ছুরি দিয়ে মাখন কাটার মতোই নাকি স্মুদ এর রাইড। এমনটাই জোর গলায় বলেন স্ক্যালপেলপ্রেমীরা।
১২ KTM 790 Duke
২০১২-তে ভারতের বাজারে পা রেখেছিল অস্ট্রিয়ার সংস্থা কেটিএম। এ দেশে বজাজ অটো-র সঙ্গে হাত মিলিয়ে ব্যবসা শুরু করে তারা। এই মুহূর্তে কেটিএম-এ ৪৮ শতাংশ শেয়ার রয়েছে বজাজ অটো-র।
১২ KTM 790 Duke
এর আগে ভারতের বাজারে ৩৭৩ সিসি-র উপরে কেটিএম-এর কোনও বাইক ছিল না। তবে এই সুপারবাইকে রয়েছে ৭৯৯ সিসি প্যারালাল টুইন মোটর। সম্ভবত এই প্রথম মাঝারি ওজনের সুপারবাইকে প্যারালাল টুইন মোটর রেখেছে কেটিএম।
১২ KTM 790 Duke
সুপারবাইক হলেও ওজনের দিক থেকে তুলনামূলক ভাবে বেশ হাল্কা। মাঝারি ওজনের সেগমেন্টের কথা ভেবে তৈরি কেটিএম ৭৯০ ডিউকের ওজন মাত্র ১৮৯ কিলোগ্রাম। সুপারবাইকের এই মেদহীন শরীরের রহস্যটা কী? কেটিএম জানিয়েছে, কমপ্যাক্ট ডাইমেনশনের ট্রেলিস ফ্রেম আর অ্যালুমিনিয়ামের রিয়ার সাব-ফ্রেম থাকায় এর ওজন খুব একটা বাড়েনি।
১২ KTM 790 Duke
ওজন আয়ত্তে থাকলেও কেটিএম ৭৯০ ডিউকের জোড়া ইঞ্জিনের ভিতরের শক্তিও বড় একটা কম নয়। ১০৩ বিএইচপি-র পিক টর্ক ৮৭ এনএম। তবে গতি যাতে আপনার হাতের মুঠোয় থাকে, তার জন্য রয়েছে সিক্সস্পিড গিয়ারবক্স।
১২ KTM 790 Duke
প্রতি টনে ৬১২ বিএইচপি হওয়ায় ওজনের সঙ্গে সমানুপাতিক ভাবে শক্তির ক্ষেত্রেও ভারসাম্য বজায় রয়েছে এই সুপারবাইকটিতে। ফলে ভাল রাস্তায় হোক বা জলকাদা মাখা মেঠো পথ, এই বাইক চালিয়ে আরাম পাবেন বলেই দাবি প্রস্তুতকারকদের।
১২ KTM 790 Duke
স্পোর্ট, স্ট্রিট, রেইন এবং ট্র্যাক— আপাতত কেটিএম ৭৯০ ডিউককে এই চারটে রাইড মোডে দেখা যাবে ভারতের রাস্তায়। প্রতিটি মোডেই পাওয়ার ডেলিভারি, থ্রটল ইনপুট, ট্র্যাকশন কন্ট্রোল একে অন্যের থেকে আলাদা। ট্র্যাক মোডে এ সবই আবার নিজের ইচ্ছে মতো বদল করে নেওয়ার সুবিধা রয়েছে।
১২ KTM 790 Duke
পারফরম্যান্স জোরদার করতে এই সুপারবাইকে স্ট্যান্ডার্ড ফিটমেন্ট হিসাবে মোটর স্লিপ রেগুলেশন এবং পাওয়ার অ্যাসিস্টে়ড স্লিপার ক্লাচ রয়েছে। সেই সঙ্গে ব্রেক সিস্টেমে রয়েছে বশ-এর এবিএস। কন্ট্রোল জোরদার করতে এতে যোগ করা হয়েছে লিন অ্যাঙ্গল সেনসিটিভ মোটরসাইকল ট্র্যাকশন কন্ট্রোল (এমটিসি)।
১০১২ KTM 790 Duke
সোমবার ভারতের বাজারে লঞ্চ করা হলেও এখনই দেশ জুড়ে মিলবে না এই সুপারবাইকটি। আপাতত বেঙ্গালুরু, মুম্বই, পুণে, হায়দরাবাদ, সুরাট, দিল্লি, কলকাতা, চেন্নাই এবং গুয়াহাটি, এই ন’টি শহরেই এর বুকিং করা যাচ্ছে বলে জানিয়েছে কেটিএম।
১১১২ KTM 790 Duke
৭৯০ ডিউকের লঞ্চের সময় স্বাভাবিক ভাবেই এর প্রশংসায় পঞ্চমুখ হয়েছেন কেটিএম ইন্ডিয়ার মার্কেটিং হেড বিকাশ আইয়ার। হবেন না-ই বা কেন! গোটা বিশ্বে এ দেশের বাজার তাঁদের সংস্থার কাছে সবচেয়ে বড়। গত বছরে ৪০ শতাংশ বৃদ্ধি হয়েছে সংস্থার। বিকাশ আইয়ারের দাবি, ভারতের রাস্তায় এমন সুপারবাইক কমই রয়েছে।
১২১২ KTM 790 Duke
পারফরম্যান্স তো জানলেন। তবে কেটিএম ৭৯০ ডিউককে নিজের মালিকানায় আনতে কত টাকা খরত করতে আপনাকে? কেটিএম জানিয়েছে, ৮ লক্ষ ৬৩ হাজার টাকা। তবে ঘাবড়াবেন না! প্রথমে এক লক্ষ ৭ হাজার টাকা ডাউনপেমেন্ট দিয়ে মাসে ১৯ হাজার টাকার মাসিক কিস্তিতেও একে ঘরে আনতে পারবেন। তবে সে ক্ষেত্রে বজাজ ফাইনান্সের সুবিধা নিতে হবে।

Advertisement

সবাই যা পড়ছেন

Advertisement

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
বাছাই খবর
আরও পড়ুন