Advertisement
০৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৩
Science

ট্যাক্সির চেয়ে কম ভাড়ায় মহাকাশ ঘোরানোর কথা ভাবছে ইসরো

কিলোমিটার পিছু ভাড়া গুনতে হবে বড়জোর সাত টাকা করে! যেতে চান মহাকাশে? আমার আপনার মতো গড়পড়তা ভারতীয়দের যতটা সম্ভব কম খরচে মহাকাশে ঘুরিয়ে নিয়ে আসার কথা ভাবছে ভারতের মহাকাশ গবেষণা সংস্থা ইসরো।

সুজয় চক্রবর্তী
শেষ আপডেট: ৩০ মার্চ ২০১৭ ১৫:২০
Share: Save:

কিলোমিটার পিছু ভাড়া গুনতে হবে বড়জোর সাত টাকা করে! যেতে চান মহাকাশে?

Advertisement

আমার আপনার মতো গড়পড়তা ভারতীয়দের যতটা সম্ভব কম খরচে মহাকাশে ঘুরিয়ে নিয়ে আসার কথা ভাবছে ভারতের মহাকাশ গবেষণা সংস্থা ইসরো। তার তোড়জোড়ও শুরু হয়ে গিয়েছে, জোর কদমে।

ইসরো সূত্রের খবর, উবেরে চাপলে কিলোমিটার-পিছু যতটা ভাড়া গুনতে হয়, ৬৫ কোটি কিলোমিটার দূরে মঙ্গলের কক্ষপথে পাক মেরে আসতে তার চেয়ে অনেকটাই কম ভাড়া গুনতে হবে মহাকাশ পর্যটকদের। যাত্রার আগে অন্তত এক বছর ধরে কঠোর অনুশীলনের মধ্যে থাকতে হবে মহাকাশযাত্রীদের। দিতে হবে ফিটনেস পরীক্ষা।

আরও পড়ুন: অ্যাকাউন্টে ন্যূনতম টাকা আছে তো? নইলে কাল থেকে গুনতে হবে জরিমানা

Advertisement

ইসরোর এক পদস্থ কর্তা বৃহস্পতিবার আনন্দবাজারকে বলেছেন, ‘‘এটা আর ইসরোর ভাবনা-চিন্তার চৌহদ্দিতেই আটকে নেই। ওই প্রকল্পটি বাস্তবায়িত করার উদ্যোগ ইতিমধ্যেই শুরু হয়ে গিয়েছে। মহাকাশকে বাণিজ্যিক ভাবে ব্যবহারের প্রস্তুতি অনেক দিন আগেই নিতে শুরু করে ইসরো। প্রয়াত প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি বিজ্ঞানী এপিজে আবদুল কালামের বহু দিনের সেই স্বপ্নের সার্থক রূপায়ণ ঘটে যখন ফেব্রুয়ারিতে ৮২টি বিদেশি উপগ্রহ সহ একই সঙ্গে ১০৪টি উপগ্রহকে মহাকাশে পাঠায় ইসরো। এ বার মহাকাশকে আরও বেশি বাণিজ্যিক ভাবে ব্যবহার করতে চাইছে ইসরো, সাধারণ ভারতীয়দের জন্য সস্তায় মহাকাশ পর্যটনের ব্যবস্থা করে। হিসেব কষে দেখা গিয়েছে, এলন মাস্কের ‘স্পেস-এক্স’ ও আমাজনের আসন্ন মহাকাশ পর্যটনের ঘোষিত স্কিমগুলির চেয়ে খরচের নিরিখে, তা অনেকটাই কম হবে। কিলোমিটার-পিছু খরচ পড়বে খুব বেশি হলে, সাত টাকা। সেই হিসেবে যাত্রীপিছু মহাকাশ পর্যটনের খরচ হবে কম-বেশি ১২ কোটি টাকা। অতটা খরচও হতো না, যদি না মহাকাশ পর্যটকের জন্য আলাদা ভাবে অত্যন্ত সুরক্ষিত লাইফ সাপোর্ট সিস্টেমের ব্যবস্থা করার প্রয়োজন হতো। ইসরোর কমার্শিয়াল আর্ম ‘অ্যানট্রিক্স’ হিসেব কষে দেখেছে, এই দশকের মধ্যেই আন্তর্জাতিক ভাবে ফি-বছরে গড়ে ৭৫ থেকে ১৩০টি করে মহাকাশ পর্যটন হবে। আর সেই মহাকাশ পর্যটনের জন্য উপগ্রহ-পিছু খরচ পড়বে সাড়ে সাত কোটি ডলারের মতো।’’

ইসরোর রকেট লঞ্চপ্যাড

আরও পড়ুন- পৃথিবীর ২৫ হাজার গুণ বড় গ্রহের সন্ধান দিলেন বাঙালি বিজ্ঞানীরা

এ ব্যাপারে মহাকাশ প্রযুক্তিতে এগিয়ে থাকা অন্য দেশগুলির নাগরিকদের চেয়ে ভারতীয়রা বেশি ভাগ্যবান হতে চলেছেন বলে মনে করা হচ্ছে।

কেন?

ইসরোর ওই পদস্থ কর্তাটির কথায়, ‘‘গড়পড়তা ওজনের ভারতীয়দের মহাকাশ পর্যটনের জন্য কিলোগ্রাম-পিছু ভাড়া গুনতে হবে ২ লক্ষ টাকা করে। তার সঙ্গে থাকবে মহাকাশ পর্যটকদের জন্য জরুরি লাইফ সাপোর্ট সিস্টেমের ব্যবস্থার জন্য খরচ। সব মিলিয়ে পড়তে পারে মোটামুটি ১২ কোটি টাকা বা ২০ লক্ষ ডলারের মতো। এক সপ্তাহের জন্য মঙ্গলের কক্ষপথে গিয়ে পাক মেরে আসার জন্য ‘স্পেস-এক্স’-এর মতো সংস্থাগুলির ভাড়ায় এক জন মহাকাশ পর্যটককে খরচ করতে হবে ৩ থেকে ৪ কোটি ডলার।’’

ইসরোর জনসংযোগ অধিকর্তা দেবীপ্রসাদ কার্নিক অবশ্য বলছেন, ‘‘খুব শিগগিরই মহাকাশে মানুষ পাঠানোর কথা না-ও ভাবা হতে পারে। তবে বিজ্ঞান অনেক কিছুই সম্ভব করে তুলতে পারে! লেগে যেতে পারে হয়তো আরও একটা দশক!’’

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.