1. ক্রমান্বয়ে :
  2. টাটকা
  3. পুরনো
  4. এই সংক্রান্ত
  5. 1 - 20 অফ এবাউট 4711 রেজাল্টস

খোঁজ-খবর :


মুখ্যমন্ত্রীর সফরের মুখে সংঘর্ষ

অক্টোবর/২১/২০১৯ ০৪:১০

দিন দুয়েক আগে তৃণমূলের এক কর্মী মৃত্যুর অভিযোগের পরেও উত্তেজনা কমেনি। বোমাবাজি থেকে শুরু করে পার্টি অফিস ভাঙচুরের অভিযোগ উঠছে। সেই সঙ্গেই বাড়ছে জখমের সংখ্যা।

বদলির মুখেও ব্যস্ত জেলাশাসক

অক্টোবর/২০/২০১৯ ০৪:১০

শনিবারেও নিজের দফতরে যান কৌশিক। অতিরিক্ত জেলাশাসক জ্যোতিমর্য় তাঁতি, কোচবিহার সদরের মহকুমা শাসক সঞ্জয় পাল-সহ প্রশাসনের পদস্থ কর্তাদের সঙ্গে দফায় দফায় বৈঠকও করেন তিনি।

দুই ফুলে টানা চলল সংঘর্ষ 

অক্টোবর/২০/২০১৯ ০৪:১০

দিনভর একাধিক সংঘর্ষ হয় তৃণমূল আর বিজেপির। এর মধ্যে একটি সংঘর্ষে আহত প্রিতাপ বর্মণ নামে এক তৃণমূল সমর্থক মারা গিয়েছেন বলে রাতে দাবি করেন উত্তরবঙ্গ উন্নয়ন মন্ত্রী রবীন্দ্রনাথ ঘোষ।

প্রতিবাদের ডাক রবির

অক্টোবর/১৯/২০১৯ ০৩:১০

খানিকটা ব্যাকফুটে গেলেও এই লড়াইয়ে পিছিয়ে থাকতে চায় না বিজেপিও। তড়িঘড়ি সাংবাদিক বৈঠক করে তৃণমূলের বিরুদ্ধে ফের মৃতদেহ নিয়ে রাজনীতি করার অভিযোগ তোলেন বিজেপির সাংসদ নিশীথ প্রামাণিক।

শাস্তি চাই, কান্না ছেলেদের

অক্টোবর/১৯/২০১৯ ০৩:১০

বড় ছেলে মাসুদ রানা সেনাকর্মী, মেজো ছেলে সোহেল অসম রাইফেলে কর্মরত। তাঁরা বলছেন, “আমরা দেশের সুরক্ষায় বাইরে থাকি, কিন্তু আমাদের পরিবারের সুরক্ষা কোথায়?”

‘পাইলট’কে চিনত সবাই, বলছেন রবি

অক্টোবর/১৮/২০১৯ ০৫:১০

পাতলাখাওয়ায় সংঘর্ষের সময়ে যে তৃণমূল কর্মী অসুস্থ হয়ে পড়েন, তাঁর নাম মজিরুদ্দিন সরকার (৫০)। পরে তাঁকে নার্সিংহোমে নিয়ে গেলে চিকিৎসকেরা মৃত বলে ঘোষণা করেন। এলাকায় তৃণমূলের চেনা মুখ তিনি।

‘ডাক্তার’ প্রণবের জন্য খুশি জামালদহ

অক্টোবর/১৮/২০১৯ ০৪:১০

এক সময় ডাক্তারি পড়া বন্ধ হতে বসেছিল উত্তর ২৪ পরগনার মেধাবী পড়ুয়া প্রণবের। তাঁদের পরিবারে অভাব ছিল নিত্যসঙ্গী। মা গৃহবধূ। বাবা রঞ্জন মণ্ডল অন্যের জমিতে কৃষিকাজ করে যেটুকু অর্থ উপার্জন করেন, তা দিয়েই চলত চারজনের সংসার।

কোচবিহারে বিজেপির সঙ্কল্প যাত্রায় সংঘর্ষ, মৃত ১

অক্টোবর/১৮/২০১৯ ০৩:১০

বুধবার বিজেপি কোচবিহারে সঙ্কল্প যাত্রা শুরু করে। কিন্তু সে দিন তেমন ভিড় হয়নি বলে দাবি দলেরই একাংশের।

বিজ্ঞাপনেই কি সব কাজ হবে

অক্টোবর/১৮/২০১৯ ০০:১০

কন্যাসন্তান যে বোঝা, দেশের মহিলাপুরুষ অনুপাতই বলে দেয়। এক হাজার পুরুষ প্রতি মহিলার সংখ্যা ৯৪৩ (২০১১ জনগণনা)। অন্য দিকে, ন্যূনতম বিয়ের বয়স নিয়ে রাষ্ট্রের আইনকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে দেশে অপ্রাপ্তবয়সি বিবাহিত ছেলেমেয়ের সংখ্যা এক কোটি একুশ লক্ষ।

শূন্যে ঘুরে আসুন

অক্টোবর/১৮/২০১৯ ০০:১০

সময়টা অক্টোবর। পুজোর ছুটি। গন্তব্যে পৌঁছে চায়ে চুমুক দিতেই হোটেলের ম্যানেজার হাসি হাসি মুখে জিজ্ঞেস করলেন, ‘‘ঠাকুর দেখতে যাবেন নাকি?’’ এই অঞ্চলে দুর্গাপুজো! বিস্ময় কাটালেন তিনি।

একশো দিনের কাজের চূড়ান্ত বাছাই পর্বে জেলা

অক্টোবর/১৭/২০১৯ ০২:১০

কেন্দ্রীয় গ্রামোন্নয়ন দফতর প্রতি বছর ১০০ দিনের কাজের জন্য রাজ্য ও জেলা স্তরে পুরস্কার দেয়। ওই পুরস্কার নেওয়ার চূড়ান্ত বাছাই পর্বে এ বারও ডাক পেয়েছে গত বার শীর্ষে থাকা এই জেলা।

ফের দেখা পার্থ-পরেশের, কোলাকুলিও

অক্টোবর/১৬/২০১৯ ০৪:১০

পার্থকে সরিয়ে এ বার পরেশকে টিকিট দিয়েছিল দল। ভোটে শেষপর্যন্ত পরেশ হেরে যান। দলের একাংশ জানান, ভোটে হার নিয়ে তৃণমূলের অন্দরের কোন্দল চরম আকার নিয়েছিল।

হামলা হলে ডাক্তাররা চলে যাবেন: সুপার

অক্টোবর/১৫/২০১৯ ০১:১০

মেডিক্যাল কলেজের সুপার বলেন, “মেডিক্যাল চালু হওয়ার পরে অন্তত ৩ জন চিকিৎসক আক্রান্ত হন। ২ জনকে মারধর করা হয়।

এনআরসি বিরোধিতা ফেসবুকেও

অক্টোবর/১৪/২০১৯ ০৩:১০

অনেকেই বিজেপি সরকারের বিরুদ্ধে সরব হয়েছেন।

মমতার সফরের প্রস্তুতি জেলায়

অক্টোবর/১৩/২০১৯ ০৪:১০

কোচবিহার লোকসভা আসন এ বারে হাতছাড়া হয়েছে। তার পরে কোচবিহারে শাসক দলের একাধিক নেতা-মন্ত্রী বিক্ষোভের মুখে পড়েছেন।

ভোটার-তথ্য যাচাই কর্মসূচিতে এগিয়ে বাংলাই

অক্টোবর/০৪/২০১৯ ০৩:১০

১ সেপ্টেম্বর ভোটার-তথ্য যাচাই কর্মসূচি শুরু করে নির্বাচন কমিশন। প্রথম কয়েক দিন অন্যান্য রাজ্য পশ্চিমবঙ্গের থেকে এগিয়ে গেলেও পরে পিছনের থেকে সামনের সারিতে আসে বঙ্গ।

পার্থর বদলে যুব সভাপতি হলেন বিষ্ণু

অক্টোবর/০৩/২০১৯ ০১:১০

বিষ্ণুবাবুর সঙ্গে বিভিন্ন ক্রীড়া সংগঠনের সম্পর্ক ভাল। তিনি কোচবিহার জেলা ক্রীড়া সংসদের সঙ্গেও দীর্ঘ সময় ধরে রয়েছেন। এ ছাড়া, যুব তৃণমূলের সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্বেও এক সময় ছিলেন বিষ্ণু।

আগে নাগরিক বিল, প্রচারে গেরুয়া শিবির

অক্টোবর/০৩/২০১৯ ০১:১০

অসমের নাগরিকপঞ্জি ঘোষণা হওয়ার পর থেকে পশ্চিমবঙ্গ, বিশেষ করে উত্তরবঙ্গে কোণঠাসা হয়ে পড়ে বিজেপি। এনআরসি-র আতঙ্কে একের পর এক মৃত্যুর অভিযোগও সামনে আসতে শুরু করে।

ঈশ্বরচন্দ্রের সুপারিশের চিঠি অমিল

সেপ্টেম্বর/৩০/২০১৯ ০৩:০৯

বিদ্যাসাগর লিখেছিলেন, “একটি অগ্নিস্ফুলিংঙ্গ পাঠাইলাম, দেখিও যেন বাতাসে  উড়িয়া না যায়।” বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য দেবকুমার মুখোপাধ্যায় বলেন, “ওই চিঠিটি আমরা পেলে বিশ্ববিদ্যালয়ের সংগ্রহালয়ে রাখতে চাই। গবেষকদের সঙ্গে কথা বলে এ বিষয়ে উদ্যোগ নেওয়া হবে।”

অসুর নিধন তো হবে, আর দূষণ?

সেপ্টেম্বর/৩০/২০১৯ ০৩:০৯

জলসঙ্কটের অশনি সঙ্কেত। তবুও আমরা নির্বিকার। বাড়ছে জল দূযণ। পুকুরে-নদীতে ফেলা হচ্ছে প্রতিমার রং, মাটি। বিসর্জনের সময় দূযণ বাড়ছে আরও। আর কবে সতর্ক হব আমরা?