সিএবি-র বর্ষসেরা ক্রিকেটার হলেন অভিমন্যু ঈশ্বরন। মেয়েদের বিভাগে সেই পুরস্কার পাচ্ছেন ভারতীয় অলরাউন্ডার দীপ্তি শর্মা। কয়েক বছর ধরেই দুরন্ত পারফর্ম করে চলেছেন এই দুই ক্রিকেটার। বাংলাকে অনূর্ধ্ব-২৩ বিভাগ ও সিনিয়র বিভাগে ট্রফি আনতে সাহায্য করেছেন দীপ্তি। দু’জায়গায় উইমেন অব দ্য  সিরিজও হয়েছেন। পিছিয়ে নেই অভিমন্যুও। রঞ্জিতে ছয় ম্যাচে রান ৮৬১। তিনটি সেঞ্চুরির পাশাপাশি রয়েছে একটি ম্যাচ জেতানো ডাবল সেঞ্চুরি। এমনকি সৈয়দ মুস্তাক আলি টি-টোয়েন্টিতেও সেঞ্চুরি রয়েছে তাঁর। এ দিন সকালেই ওয়েস্ট ইন্ডিজ ‘এ’ সফরের জন্য রওনা হন বাংলার তরুণ ওপেনার। বর্ষসেরা হওয়ার পাশাপাশি বর্ষসেরা ক্রিকেট ব্যক্তিত্ব হিসেবেও অভিমন্যুকেই বেছে নেওয়া হয়। তেমনই অনূর্ধ্ব-২৩ বিভাগেও তনুশ্রী সরকারের সঙ্গে নির্বাচিত হন দীপ্তিও।

বর্ষসেরা পেসার হয়েছেন মুকেশ কুমার। অনূর্ধ্ব-২৩ বিভাগের সেরা ক্রিকেটার বেছে নেওয়া হয়েছে ঋত্বিক রায়চৌধুরীকে। এ ছাড়াও পুরস্কৃত হচ্ছেন অনন্ত সাহা, করণ লাল, প্রভাত মৌর্য, আনাস আলি খান, দিগন্ত নিয়োগী, তৌফিকুদ্দিন মণ্ডলরা।

শোনা যাচ্ছে ৩ অগস্ট নেতাজি ইন্ডোর স্টেডিয়ামে প্রত্যেককে পুরস্কৃত করা হবে। যদিও পাকাপাকি ভাবে এখনও দিন ঠিক করা হয়নি। আর অতিথি হিসেবে থাকবেন ভারতীয় দলের এক ক্রিকেটার। কিন্তু এখনও তাঁর নাম ঘোষণা করেনি সিএবি।