বিশ্বকাপের দল থেকে বাদ পড়ে নির্বাচকদের এক হাত নিলেন অম্বাতি রায়ুডু।

সোমবার মুম্বইয়ে দল ঘোষণার পরে নির্বাচক প্রধান এমএসকে প্রসাদ বিজয় শঙ্করকে দলে নেওয়ার কারণ ব্যাখ্যা করতে গিয়ে ‘থ্রি ডাইমেনশন’ শব্দ ব্যবহার করেছিলেন। দল নির্বাচনের পরে প্রসাদ বলেছিলেন, ‘‘রায়ুডুকে আমরা বেশ কয়েকবার সুযোগ দিয়েছি। কিন্তু বিজয় শঙ্কর তিনটি বিভাগেই ভাল পারফরম্যান্স দেখিয়েছে। মেঘলা আবহাওয়ায় বিজয় শঙ্কর ব্যাট করতে পারে, বল করতে পারে, সেই সঙ্গে ফিল্ডিংও করতে পারে। আমরা চার নম্বরে বিজয় শঙ্করকেই ভাবছি।’’ তিনটি বিভাগেই যে দক্ষ বিজয় শঙ্কর, এটা বোঝানোর জন্য প্রসাদ ‘থ্রি ডাইমেনশন’ বলেছিলেন।

বিশ্বকাপ দল থেকে ছিটকে যাওয়ার পরে রায়ুডু এদিন সোশ্যাল মিডিয়ায় নিজের হতাশা প্রকাশ করে টুইট করেছেন, ‘‘বিশ্বকাপ দেখার জন্য এখনই নতুন থ্রি ডি চশমার অর্ডার দিয়েছি।’’ নির্বাচকদের কথা তাঁদেরই ফিরিয়ে দিলেন চেন্নাই সুপার কিংসের ক্রিকেটার।

আরও পড়ুন: ধোনিকে ব্যান করা উচিত ছিল, তীব্র আক্রমণ সহবাগের

আরও পড়ুন: ম্যাচ ফি’র ৫০ শতাংশ জরিমানা ধোনির, আরও বড় শাস্তি হওয়া উচিত ছিল, বলছেন মঞ্জরেকর

এ দিকে ভারতের বিশ্বকাপ দল ঘোষণার পরেই আইসিসি-র তরফ থেকে টুইট করা হয়। রায়ুডুকে দল থেকে বাদ দেওয়া নিয়ে প্রশ্ন তুলে দেয় আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিলের নিয়ামক সংস্থা। এ বার মহেন্দ্র সিংহ ধোনির দলের তারকা ক্রিকেটার নির্বাচকদের জবাব দেওয়ার জন্য খেলার মাঠের পরিবর্তে বেছে নিলেন সোশ্যাল মিডিয়া।